অলিম্পিক পিছিয়ে গেল এক বছর

আপডেট: March 25, 2020, 12:46 am

সোনার দেশ ডেস্ক


এক বছর পিছিয়ে গেল অলিম্পিক আয়োজন। গতকাল মঙ্গলবার অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে একমত হয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ও আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির (আইওসি) প্রধান টমাস বাখ। পরে আইওসি আনুষ্ঠানিকভাবেই জানিয়ে দিয়েছে স্থগিত করা হয়েছে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক। ২০২১ সালে অলিম্পিক আয়োজনের আশা করছে আইওসি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ছাড়া আর কখনোই শান্তিকালীন সময়ে অলিম্পিক বন্ধ হয়ে যাওয়া বা পিছিয়ে যাওয়ার নজির নেই। করোনাভাইরাসে পৃথিবীময় মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ায় এমন নজিরবিহীন ঘটনাই ঘটতে যাচ্ছে।
আগামী ২৪ জুলাই জাপানের রাজধানী টোকিওতে শুরু হওয়ার কথা ছিল বিশ্বের সর্ববৃহৎ এ ক্রীড়া আসর। এটি পিছিয়ে যাওয়াতে বিরাট ক্ষতির মুখেই পড়তে হবে জাপানকে। এরই মধ্যে সব ভেন্যু প্রস্তুত হয়ে গেছে। আয়োজনের অনেক কিছুই রয়েছে শেষ পর্যায়ে। এ ক্ষতি মেনে নিয়েই অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী, ‘আমি অলিম্পিক এক বছরের জন্য পিছিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছি। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান টমাস বাখ এ ব্যাপারে আমার সঙ্গে শতভাগ একমত।’
অলিম্পিকের আসর অতীতে নানা ধরনের বাধার মুখে পড়েছে। এতে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। অনেক দেশ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দেশ অংশগ্রহণ করেনি। গণবিক্ষোভও দেখা গেছে নানা সময়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণে ১৯৪০ ও ১৯৪৪ সালের অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হয়নি। কিন্তু অলিম্পিকের আসর পিছিয়ে যাওয়ার ঘটনা এই প্রথম।
করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে এখনো পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে ১৬ হাজার মানুষ। কয়েক লাখ মানুষ আক্রান্ত এ ভাইরাসে। গত বেশ কয়েক দিন ধরেই অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়ার কথা উঠেছিল। এটি পিছিয়ে যাওয়ায় জাপান ৬ বিলিয়ন ডলারের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে।
গত রোববার আইওসি অলিম্পিক নিয়ে যেকোনো সিদ্ধান্ত নিতে চার সপ্তাহ সময় নেওয়ার কথা জানিয়েছিল। সোমবার অস্ট্রেলিয়া ও কানাডা আইওসিকে জানিয়ে দেয়, করোনা-পরিস্থিতির ভয়াবহতার মধ্যে তাদের অলিম্পিকে অংশ নেওয়া সম্ভব নয়। যুক্তরাষ্ট্র অলিম্পিক কমিটিসহ সাবেক অলিম্পিয়ানরাও অলিম্পিক আপাতত স্থগিত করার দাবি জানিয়ে আসছিল।-প্রথম আলো অনলাইন