আওয়ামী লীগের জয় কেউ থামিয়ে দিতে পারবে না : লিটন

আপডেট: মে ১৬, ২০১৮, ১:১০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


বঙ্গবন্ধু পরিষদ রাজশাহী শাখার সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখছেন নগর আ’লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন-সোনার দেশ

আওয়ামী লীগের নগর সভাপতি ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, খুলনার সিটি করপোরেশন নির্বাচনই বলে দিচ্ছে, বর্তমানে আওয়ামী লীগ কতটা জনপ্রিয়। এর মাধ্যমেই প্রমাণিত হয়েছে সরকার যেভাবে দেশ চালাচ্ছেন, তাতে জনগণের সমর্থন আছে। এই নির্বাচনের প্রভাব আগামি সিটি ও জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পড়বে। আওয়ামী লীগের জয় কেউ থামিয়ে দিতে পারবে না।
গতকাল মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু পরিষদের নগর কমিটি গঠনের সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের ১০১ সদস্য বিশিষ্ট নগর কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ সভা বিকেল ৪টায় টিচার্স ট্রেনিং কলেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নগরীর বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জয়লাভের একমাত্র কারণ সরকারের উন্নয়ন। সরকারের উন্নয়নে জনগণের সমর্থন থাকায় বিপুল ভোটে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয় লাভ করেছেন। এই ফলাফলের প্রভাব নিশ্চয় রাজশাহী সিটি নির্বাচনেও পড়বে। সিটির জনগণও আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে ভোট দিয়ে আমাকে জয় করবে বলে আহ্বান তার।
কমিটিতে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন প্রফেসর নূরল আলম ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন আরিফুল হক কুমার। এছাড়া সহসভাপতি প্রফেসর রুহুল আমিন প্রামানিক ও প্রফেসর গোলাম কবীর, যুগ্ম-সম্পাদক অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান ও শফিকুজ্জামান শফিক এবং কোষাধ্যক্ষ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মোরশেদ মঞ্জুর চুন্না।
কমিটিতে উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন, নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা, সাংসদ আখতার জাহান, জিন্নাতুন নেসা তালুকদার ও মোহাম্মদ আলী কামাল।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ