আক্কেলপুুরে বেশি দামে চামড়া ক্রয় করে লোকশানের মুখে ব্যবসায়ী

আপডেট: অক্টোবর ১৫, ২০১৬, ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

আক্কেলপুর প্রতিনিধি     
কোরবানির পশুর চামড়া বেশি দামে ক্রয় করে এখন লোকশানের মুখে পড়েছেন আক্কেলপুর উপজেলার এক ব্যবসায়ী বেলাল হোসেন। তিনি ঋণ করে ৬৫ লাখ টাকার ৫ হাজার গরুর চামড়া ক্রয় করেছিলেন। কিন্তু যে দামে ক্রয় করে ছিলেন। সে দামও পাচ্ছে না ব্যবসায়ীরা।
জানা গেছে, কোরবানির ঈদ হয়েছে ১৩ সেপ্টেম্বর। এবার লবন সহ অন্য উপকরণের দাম বেশির কারণে চামড়ার বাজারে নেমেছে ধস। কোরবানির দিনে গ্রামে গঞ্জে ঘুরে ঘুরে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা গরুর আকার অনুযায়ী ১ হাজার টাকা থেকে ২ হাজার টাকায় প্রতিটি চামড়া কিনেছেন। এবার সকল মৌসুমী ব্যবসায়ীরাও লোকশান গুনেছেন। এখানকার ফড়িয়ারাও বেশি দামে চামড়া কিনে পড়েছেন বিপাকে। এখন পর্যন্ত কোরবানিতে কেনা চামড়া বিক্রি করতে না পারায় লোকশানের পরিমান দিনদিন বেড়েই চলেছে।
আক্কেলপুর কলেজ বাজারের চামড়ার ফড়িয়া ব্যবসায়ী বেলাল হোসেন জানান, ধারদেনা করে এবার কোরবানিতে ৬৫ লাখ টাকায় ৫ হাজার পিস গরুর চামড়া কিনেছেন। ঈদের পর থেকে রাখা হয়েছে লবন মিশিয়ে। এখন মহাজনেরা কেনা দামের থেকে প্রতি পিস চামড়ার কম দাম করছেন ১০০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। এতে  প্রায় ৬ লক্ষ টাকা লোকশানে পড়তে হচ্ছে তাকে। এত পরিমান টাকা লোকশান হলে তাকে এ ব্যবসা ছেড়ে দিতে বাধ্য হবেন। পরিশোধ করতে পারবেন না ধারদে না। সংসারে নেমে আসবে অনটন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ