আগামী মাসে রেমিটেন্সের মাশুল কমানো হবে : অর্থমন্ত্রী

আপডেট: জুলাই ১০, ২০১৭, ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দেশে প্রবাসী আয় বাড়াতে রেমিটেন্স পাঠানোর মাশুল আগামী মাসেই কমানো হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।
তিনি বলেন, ‘একটা অভিযোগ আছে,তাদের (প্রবাসীরা) রেমিটেন্স পাঠানোর ক্ষেত্রে বেশ ফি দিতে হয়। ফি আমরা কমিয়ে দেবো। সামনের মাসেই এটা কমিয়ে দেওয়া হবে। সামান্য একটা নামমাত্র ফি থাকবে।’ শনিবার সিলেট নগরীর নাইওরপুল এলাকায় নবনির্মিত ফোয়ারার উদ্বোধন করে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বিদেশে প্রবাসীদের সেটেল হওয়ার হার বাড়ছে, তাই অনেকে টাকা কম পাঠাচ্ছেন। বিভিন্ন দেশে প্রবাসীদের সেটেলমেন্টের ব্যবস্থা হয়েছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই তারা সেখানে সেটেল হচ্ছেন।’
সিলেট নগরীর নাইওরপুল পয়েন্টে নবনির্মিত দৃষ্টিনন্দন ফোয়ারাটি সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে এবং ব্যাংক এশিয়ার আর্থিক সহযোগিতায় নির্মিত হয়েছে। সম্পূর্ণ সাদা রঙে সিরামিক ও সিমেন্টের মিশ্রণে তৈরি ফোয়ারাটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ২০ লাখ টাকা।
মুহিত বলেন, অর্থপাঁচার সারা দুনিয়াতেই হয়। তবে রেটস অব গ্রোথ (পাঁচারের হার) আমাদের একটু বেশি। এর জন্য আমরাও দায়ী। জমির সরকারি মূল্য কমিয়ে রাখা একটা সমস্যা।
এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কেউ এক কোটি টাকার জমি বিক্রি করলে সেখানে সরকারি দাম ৩০ লাখ, বাকি ৭০ লাখ কালো টাকা হয়ে যায়। তবে পাচার বন্ধে সরকার ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন,খুব শিগগির জমির সরকারি দাম বাড়িয়ে বাজারদর ঠিক করা হবে।
ফোয়ারার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিব, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান এ কে আবদুল মোমেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।-বাসস