আধুনিক দৃষ্টিনন্দন পর্যন্টন কেন্দ্র গড়ে তোলার দাবি লাখো মানুষের।। ঈদকে ঘিরে মহাদেবপুরে ঐতিহ্যবাহী ছাতরা বিলে উপচে পড়া ভিড়

আপডেট: জুন ২৯, ২০১৭, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ

এম.সাখাওয়াত হোসেন,মহাদেবপুর প্রতিনিধি


ঈদকে ঘিরে মহাদেবপুরে ঐতিহ্যবাহী ছাতরা বিলে উপচে পড়া ভিড়-সোনার দেশ

নওগাঁর মহাদেবপুরে পবিত্র ঈদুল ফিতরকে ঘিরে উপজেলার একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র ঐতিহ্যবাহী ছাতরা বিলে দেখা গেছে আবাল বৃদ্ধ বনিতার উপচে পড়া ভিড়। নওগাঁ জেলার প্রাণকেন্দ্র ভৌগলিক অবন্থানে জেলার মধ্যবর্তী উপজেলা মহাদেবপুর । এই উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১২কিলোমিটার পশ্চিমে চাঁন্দাশ ইউনিয়নের অন্তর্গত ঐতিহ্যবাহী দৃষ্টিনন্দন ছাতরা বিল। মহাদেবপুর, নিয়ামতপুর ও মান্দা উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষে বয়ে যাওয়া কয়েক মাইল দীর্ঘ ছাতরার এই বিলে প্রতি বছরের মতো ঈদের দিন নামাযের পর থেকেই সারা দিন ব্যাপী ছিল হাজারো মানুষের ঢল। আনন্দ উৎচ্ছাসে মেতে উঠেছিল বিভিন্ন বয়সের শ্রেণি পেশার মানুষ । পরিণত হয়েছিল মিলন মেলায়। সবাই হাসি আনন্দ, গল্প-গুজবে মেতে উঠেছিল। যা না দেখলে বিশ্বাস করা কঠিন। দীর্ঘ দিন যাবত অবহেলা-অনাদরে পড়ে থাকা শুষ্ক ছাতরার বিলে সম্প্রতি এক পসলা বৃষ্টির ফলে সামান্য যে বৃষ্টির পানির ধারাটি ছাতরার বিলে জমেছে, একে কেন্দ্র করে জনগণের এই উচ্ছাস। এখানে বেড়াতে আসা সকলেরই বর্তমান সরকারের দাবি মহাদেবপুর উপজেলার এই দৃষ্টিনন্দন ছাতরা বিলটি সংস্কার করার। এক সময় ঐতিহ্যবাহী ছাতরা বিলের জলরাশিতে হালকা বাতাসে ঢেউয়ে ঢেউয়ে মাতোয়ারা হয়ে উঠতো। ঝাকে ঝাকে পাখি পড়তো,পালতোলা নৌকা চলত, কৃষান বধুরা নাইতে যেতো, জেলেরা মাছ ধরতে যেতো তাদের ছোট ডিঙ্গী নৌকা নিয়ে। এই ছাতরা জল রাশিকে ঘিরে একটা দৃষ্টিনন্দন দর্শনীয় স্থান গড়ে উঠলে সেখানে শহরের বদ্ধ অবস্থা থেকে হাপিয়ে ওঠা মানুষেরা একটু মুক্ত ভাবে নিঃশ্বাস নিতে, মুক্ত বায়ু সেবন করতে কিছুক্ষনের জন্য হলেও নিজেকে মুক্ত প্রকৃতির কোলে সমর্পন করতে পারবে। ভাবতে পারবে তারা তাদের অতিত ঐতিহ্য নিয়ে। এই বিল খণন করে জলাধার সৃষ্টি করলে বন্ধ হবে এই অঞ্চলের মরুকরণ প্রক্রিয়া। আবার জলে ভরপুর হয়ে উঠবে গ্রামের শুকিয়ে যাওয়া কুয়াগুলো। ১১০ ফিট গভীরে বসানো টিউবওয়েল গুলোর পানি উঠে আসবে ২৫-৩০ ফিটে। এই বিল থেকে হাজার-হাজার মণ মাছ সংগ্রহ করে জেলেরা পূরণ করবে দেশের মানুষের আমিষের চাহিদা। জীব বৈচিত্রে অতিতের মতো ভরপুর হয়ে উঠবে এ অঞ্চলের গ্রাম এলাকাগুলি। নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর, নিয়ামতপুর ও মান্দা উপজেলায় বসবাসরত কয়েক লাখ মানুষ বিলটি সংস্কার করে একটি আধুনিক দৃষ্টিনন্দন পর্যন্টন কেন্দ্র গড়ে তোলার দাবি জানিয়েছেন।
এ বিষয়ে মহাদেবপুর ও বদলগাছী আসনের সাংসদ ছলিম উদ্দীন তরফদার সেলিম বলেন, মহাদেবপুর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ছাতরা বিলটি আমাদের প্রাচীন ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক। তিনি বলেন বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগীতায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পর্যটন শিল্প বিকশিত হয়েছে। তিনি আরো জানান আগামীতে অর্থ প্রাপ্তি সাপেক্ষে মহাদেবপুর উপজেলার ঐতিহাসিক ছাতরা বিলটি সংস্কার করে একটি আধুনিক পর্যন্টন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে।