আ. লীগের প্রার্থী তালিকায় আরও ‘চমক থাকবে’

আপডেট: জুন ১, ২০১৮, ১:০৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাকিব আল হাসানের মনোনয়নের বিষয়টি এখনও আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী নির্বাচনে তাদের প্রার্থী তালিকায় আরও কিছু চমক থাকবে।
বৃহস্পতিবার বিকালে ধানম-িতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকম-লীর সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।
কাদের বলেন, “আমাদের এবারের নির্বাচন তথা সামনের নির্বাচনে কিছু চমক আছে প্রার্থী মনোনয়নে। সেটা এখনও কোনো চূড়ান্ত রূপ নেয়নি। অনেকের আবেদন আছে, আগ্রহ আছে- সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে, ক্রীড়া ক্ষেত্রে, গণমাধ্যম ক্ষেত্রসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে।”
কী চমক থাকছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “এটা এখন বলব না। এগুলো নিয়ে আলাপ-আলোচনা চলছে।”ক্রীড়া ক্ষেত্রে মনোনয়ন নিয়ে কাদের বলেন, “সাকিব আর মাশরাফি এদের ব্যাপারে আমরা কোনো মন্তব্য এই মুহূর্তে করতে চাই না।
“আমার সাকিবের সাথে কথা হয়েছে। তারা বিশ্বককাপের আগে নির্বাচন নিয়ে রাজনীতি নিয়ে কোনো কথা তাদের নেই।”গত মঙ্গলবার একনেক সভার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের আলাপে দুই ক্রিকেটার মাশরাফি ও সাকিবের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার আভাস পাওয়া যায়।
বিসিবির সাবেক সভাপতি ও আইসিসির সাবেক সভাপতি মুস্তফা কামালের ওই বক্তব্য নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, “তিনি বলেননি তারা আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হচ্ছে। তিনি বলেছেন, ‘ওরা প্রার্থী হলে আমি ভোট দেব’।”এ বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠেয় আগামী জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক সবার নামের তালিকা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আছে বলে জানান কাদের।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ক্রিকেটারদের মনোনয়নের বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন বলে তার কথায় প্রতীয়মাণ হয়েছে। মঙ্গলবার গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “পৃথিবীর সব দেশেই সেলিব্রেটিদের মনোনয়ন দেওয়া হয়। তাদেরও একটা আকাঙ্ক্ষা থাকে; তারা দেশের জন্য সম্মান এনেছে।”ওবায়দুল কাদের বলেন, “বিশ্বকাপের পরেই দেখা যাবে তারা কে কে নির্বাচন করবে, কীভাবে করবে, কোন আসন থেকে করবে। এগুলো আলাপ-আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে, বিশ্বকাপের আগে তারা (মাশরাফি-সাকিব) মনস্থির করেনি।”আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “আমরা যাকেই মনোনয়ন দেব তাকে অবশ্যই উইনেবল হতে হবে।”সাম্প্রতিক বিভিন্ন অর্জন ও সাফল্যের জন্য আগামী ৭ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দলের পক্ষে থেকে ‘গণসংবর্ধনা’ দেওয়া হবে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান তিনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জনের স্বীকৃতি, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সফল উত্ক্ষেপণসহ বিভিন্ন অর্জনে এই গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে।
এছাড়া ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নতুন ভবন উদ্বোধন করা হবে বলে জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে দলের অন্য নেতাদের মধ্যে মাহাবুব-উল-আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আবদুস সোবহান গোলাপ, হাছান মাহমুদ, আফজাল হোসেন, আব্দুস সবুর, দেলোয়ার হোসেন, ডা. রোকেয়া সুলতানা, শাম্মী আহম্মেদ, আমিনুল ইসলাম আমিন, বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ