বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

ঈশ্বরদীতে নবান্ন উৎসব শুরু || মাঠ দিবসে কৃষক সেজে ধান কাটাতে অংশ নিলেন কর্মকর্তারা

আপডেট: November 23, 2019, 12:39 am

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


ঈশ্বরদীতে নবান্ন উৎসবে মেয়র ও কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাসহ অতিথিবৃন্দ-সোনার দেশ

কোর্ট-প্যান্ট, পাঞ্জাবি পরেই কৃষক সেজে গলায় গামছা, মাথায় মাথাল ও হাতে কাস্তে নিয়ে ধান কাটলেন কৃষি বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তা, মেয়র ও অতিথিবৃন্দ। গতকাল শুক্রবার ঈশ্বরদীতে নবান্ন উৎসবের উদ্বোধন, ফসল কর্তন ও মাঠ দিবসের অনুষ্ঠানে কৃষকদের উন্নয়নে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান এসব কর্মকর্তারা।
২০১৮-১৯ অর্থ বছরের রাজস্ব খাতের অর্থায়নে বাস্তবায়িত রোপা আমন প্রদর্শনীর ফসল কর্তন উৎসব ও মাঠ দিবস উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার দুপুরে ঈশ্বরদীতে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর খামারবাড়ি ঢাকা মহাপরিচালক কৃষিবিদ ড. মো. আবদুল মঈদ উপস্থিত ছিলেন। ঈশ্বরদী উপজেলার ইস্তা গ্রামে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ঈশ্বরদী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর। এতে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর পাবনার উপ-পরিচালক মো. আজাহার আলী। স্বাগত বক্তব্য দেন ঈশ্বরদী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আবদুল লতিফ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ঈশ্বরদী কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ কৃষিবিদ মো. রফিকুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর বগুড়ার অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ আ ক ম শাহরীয়ার, যশোর অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ আলী, ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত কৃষক সাজাহান আলী পেঁপে বাদশা, নুরুন্নাহার বেগম, কৃষক জুলহাস উদ্দিন, আনিসুর রহমান প্রমুখ।
এর আগে অনুষ্ঠানস্থলের পাশের খেতে রোপা-আমন ব্রি ধান-৮০ কর্তনের মাধ্যমে নবান্ন উৎসবের উদ্বোধন করেন অতিথিবৃন্দ। এ সময় ঢাকা, বগুড়া, পাবনা, যশোর, ঈশ্বরদী কৃষি দফতরের বিভিন্ন পদস্থ কর্মকর্তা, ঈশ্বরদী কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের শতাধিক শিক্ষার্থী ও স্থানীয় কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ