ঈশ্বরদীর রশিদ অয়েল মিলে বিনা নোটিশে ২৪ নারী শ্রমিককে ছাঁটাই || প্রতিবাদে বিক্ষোভ : অবরোধ

আপডেট: আগস্ট ২৩, ২০১৯, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


কোন কারণ ছাড়াই চাকরি থেকে ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে পাবনার ঈশ্বরদীতে একটি তেল মিলের চাকরিচ্যুত নারী শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল ও মিল গেট অবরোধ করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নের বহরপুর এলাকায় রশিদ অয়েল মিল নামের ওই কারখানার শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ ও গেট অবরোধ করে। এসময় কারখানা কর্তৃপক্ষের লেলিয়ে দেওয়া ককেজন পুরুষ শ্রমিকরা আন্দোলনরত এক নারী শ্রমিককে শারিরিকভাবে মারধর ও লাঞ্ছিত করে।
মিলের শ্রমিকরা জানান, তারা ২ বছর ধরে নিয়মিত শ্রমিক হিসেবে কাজ করে আসছেন। এবার কোরবানির ছুটির সময় গত ১০ আগস্ট মিল কর্তৃপক্ষ তাদের হঠাৎ তাদের মৌখিকভাবে জানায়, যে তাদের চাকরি করার দরকার নেই। কারণ জানতে চাইলে তাদের ঈদের পর যোগাযোগ করতে বলা হয়। কর্তৃপক্ষের কথা অনুযায়ী গত ১৯ আগস্ট চাকরিতে যোগদান করতে এলে তাদের প্রধান গেট থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার এসব শ্রমিকরা আবারো মিলে এলে তাদের মিলে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া হয়। এর প্রতিবাদে চাকরিচ্যুত এসব শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল করে। মিলের গেট দিয়ে প্রবেশ করতে চাইলে পুরুষ শ্রমিকরা মিতু খাতুন নামের এক শ্রমিককে মারধর করে। শ্রমিক সেলিনা খাতুনসহ অন্যরা বলেন, নিয়ম অনুযায়ী চাকরিচ্যুত করার ৩ মাস আগে নোটিশ ও ৩ মাসের বেতন দেওয়ার কথা, কিন্তু এসব কোন নিয়মের তোয়াক্কা না করে তাদের ২৪ জনকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।
এসব বিষয়ে মিলের সহকারী ম্যানেজার মোখলেছুর রহমান মুকুল বলেন, মিলে কাজ না থাকায় তাদের ঈদের আগে বেতন বোনাস দিয়ে মিলে না আসতে বলে দেওয়া হয়েছিল। মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুর রশিদ বলেন, মিলের সয়াবিন ইউনিট বন্ধ হওয়ায় এই ইউনিটের শ্রমিকদের চাকরিচ্যুত করা হয়েছে তবে সয়াবিন ইউনিট চালু হলে তাদের চাকরিতে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ