উড়ন্ত কার্পেট

আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৯, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ

হুমায়রা রহমান


ছিমিন আর মিমিন ভাই বোন। ছিমিনের বয়স বারো, আর মিমিনের চৌদ্দ। ছিমিন ছিল বোকা আর মিমিন বুদ্ধিমান। একদিন ছিমিন আর মিমিন ঠিক করলো, তারা শিকারে যাবে। ছিমিন তো ভয়ে কাঁপতে লাগলো। মিমিন ছিমিনকে বললো, শোনো, ভয়ের কিছুই নেই। আমরা এখন অনেক বড় হয়ে গেছি। ছিমিন ভয়ে কাঁপতে কাঁপতে বললো, হ্যাঁ, তুমি ঠিক বলেছো, মিমিন। আমরা অনেক বড় হয়ে গেছি।
ছিমিন এবার পিএসসি পরীক্ষা পাশ করে সিক্স-এ উঠেছে। আর মিমিন এইটে উঠেছে।
যেই ভাবা, সেই কাজ। ছিমিন আর মিমিন গেলো গভীর অরণ্যে। এদিকে ছিমিন তো ভয়ে প্রায় আধমরা। হঠাৎ একটা ঈগলপাখি একটা বড় আম গাছে উড়ে এসে বসলো। ঈগলকে দেখে তো মিমিন খুশিতে আত্মহারা। গাছের আমগুলো দেখেও সুস্বাদু মনে হলো। ওরা দুই জন মিলে ঈগল পাখিটা শিকার করলো।
এবার তারা ঠিক করলো-বাড়ি ফেরা দরকার। হঠাৎ একটা পেগাসাস এসে তাদের বললো, তোমাদের অত দূর পথ হেঁটে যেতে হবে না। তোমরা বরং যাদুর কার্পেটে করে বাড়ি যাও।
ছিমিন ভয়ে কাঁপতে লাগলো। ছিমিনের এমন অবস্থা দেখে পেগাসাস বললো, ভয় কী? তোমরা তো উড়ে যাবে।
ছিমিন বললো, যদি পড়ে যাই?
পেগাসাস বললো, চিন্তা করো না। আগে উঠে দেখো।
তারা কার্পেটে উঠে বসলো। উড়ে উড়ে তারা নিরাপদে বাড়ি ফিরলো।
ছিমিন খুব লজ্জা পেলো তার অমন আচরণের জন্য! ( লেখক : ৩য় শ্রেণি, মাহমুদুল হাসান স্যাপার প্রাইমারী স্কুল, কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট, নাটোর)।