‘একসঙ্গে থাকাটা দাম্পত্য জীবন নয়’

আপডেট: মে ৩১, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


স্ত্রী অর্পিতার সঙ্গে প্রসেনজিৎ

টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ। তার জনপ্রিয়তা বাংলাদেশেও কম নয়। ব্যক্তিগত জীবনে তৃতীয়বারের মতো অভিনেত্রী অর্পিতা পালের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন তিনি।
প্রসেনজিৎ-অর্পিতার দাম্পত্য জীবনের ১৫ বছর কেটে গেছে। তাদের ঘর আলো করে এসেছে ত্রিসেনজিৎ নামে একটি পুত্র সন্তান। তবে গত চার বছর ধরে নিয়মিত একসঙ্গে থাকেন না এই দম্পতি। সম্প্রতি তাদের দাম্পত্য জীবন নিয়ে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে নানা কথা বলেছেন অর্পিতা পাল।
দীর্ঘ ১৫ বছরের দাম্পত্য জীবন প্রসঙ্গে জানতে চাইলে অর্পিতা বলেন, ‘আপনি বললেন বলে মনে পড়ল। নয়তো খেয়ালই করি নি। আসলে, পাশাপাশি দুটো মানুষ থাকলেই ঘষা লাগে। সেই ঘষা থেকেই সংঘর্ষ। যদি মানুষ দুটো আলাদা থাকে তা হলে সংঘর্ষের সম্ভাবনা কমে যায়। জার্নিটা মসৃণ হয়। গত চার বছর ধরে আমি অধিকাংশ সময় দিল্লিতে থাকি। ছেলেটা বাড়ি এলে এখানে এসে থাকি। বলতে পারেন ছেলেটাই আমাদের যোগসূত্র।’
আপনাদের জার্নি মসৃণ করার জন্য কী আলাদা থাকছেন? জবাবে অর্পিতা বলেন, ‘না না! আমরা দু’জনেই একে অপরকে স্পেস দেওয়ায় বিশ্বাস করি। টু মাচ ওভারল্যাপিং, টু মাচ ইন্টারফেয়ারিংয়ে কোনো সম্পর্ক ভালো থাকে না। এটা অন্যের পক্ষে বোঝা হয়তো সম্ভব নয়। আমার অনেক বন্ধু, আত্মীয় এটা নিয়ে প্রশ্ন করে। আমি বলতে বলতে ক্লান্ত, একসঙ্গে থাকাটা দাম্পত্য জীবনের সব নয়। সারা জীবন পাশাপাশি থেকেও স্বামী-স্ত্রীর খারাপ সম্পর্ক আমি দেখেছি। দূরত্বটাও জরুরি। তাতে পারস্পরিক প্রয়োজনটা বোঝা যায়। আমার আর বুম্বাদার জীবনে যাই থাকুক না কেন, আমি যদি কোনো সমস্যায় পড়ি ও সবার আগে এগিয়ে আসবে। আমিও তাই।’রাইজিংবিডি