একাত্তরের চেতনায় কলেজগুলো জাগ্রত হোক : বাদশা

আপডেট: জানুয়ারি ৩, ২০১৮, ১:২২ পূর্বাহ্ণ

নিজম্ব প্রতিবেদক


বঙ্গবন্ধু কলেজের রিসিপশন অ্যান্ড ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ফজলে হোসেন বাদশা-সোনার দেশ

রাজশাহী সদর আসনের সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, আমরা একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বুকে ধারণ করে কলেজকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমর চাই, একাত্তরের চেতনায় কলেজগুলো জাগ্রত হোক। আর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কলেজগুলো বিলুপ্ত হোক। কারণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব সুনাগরিক গড়ে তোলা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা না থাকলে কলেজগুলো সেই কাজ করতে পারবে না।
গতকাল মঙ্গলবার কলেজ প্রাঙ্গনে নগরীর বঙ্গবন্ধু কলেজে কলেজ ডে, বার্ষিক ভোজ, রিসিপশন অ্যান্ড ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম-২০১৮ অনুষ্ঠানে সকালে এর উদ্বোধন করেন কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও ফজলে হোসেন বাদশা।
পরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত এই কলেজ অ্যাকাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতেও কাজ করে। এখানকার শিক্ষকরা এই মহান দায়িত্বও পালন করছেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠার অল্প কিছুদিনের মধ্যেই কলেজটি যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছে। বঙ্গবন্ধু কলেজ আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত রাখবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।
এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। তিনি কলেজের অবকাঠামো উন্নয়নের উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি বলেন, কলেজটির গ্যারেজ নির্মাণে তিনি জেলা পরিষদ থেকে আর্থিক অনুদান দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর নামে প্রতিষ্ঠিত এই কলেজটির উন্নয়নে তিনি আগামিতেও নিজের ভূমিকা রাখার চেষ্টা করবেন।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক জিনাতুননেসা তালুকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর আব্দুল মান্নান সরকার, রাজশাহী মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সচিব ড. আনোয়ারুল হক প্রামানিক, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আঞ্চলিক কার্যালয়ের পরিচালক জাহঙ্গীর আলম ও রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর তরুণ কুমার সরকার।
অনুষ্ঠানে ওরিয়েন্টেশন বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন রাজশাহী হেরিটেজ আর্কাইভসের প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ড. মাহবুবর রহমান। স্বাগত বক্তব্য দেন কলেজের অধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে রাজশাহী সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী, জেলা পরিষদের সদস্য নাইমুল হুদা রানা ও কলেজের উপাধ্যক্ষ মো. কামরুজ্জামানসহ সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ