এবার মিরপুরের উইকেট পেল ডিমেরিট পয়েন্ট

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৮, ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


চট্টগ্রাম টেস্টে ব্যাটসম্যানরা বেশি সুবিধা পাওয়ায় ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ‘সতর্কবার্তা’ পেয়েছে জহুর আহমেদ চৌধুরীর উইকেট। এবার ব্যাটসম্যানরা সুবিধা না পাওয়ায় মিরপুরের উইকেট নিয়ে অসন্তুষ্টি জানিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।
মিরপুরের উইকেট ক্রিকেটীয় ‘মানদ-ের নিচে’ বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে আইসিসি। শুধু অসন্তুষ্টি নয়, ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুনের দেওয়া প্রতিবেদনে মিরপুরের উইকেট পেয়েছে ১ ডিমেরিট পয়েন্টও। বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের প্রথম দিন থেকেই উইকেট ভাঙা শুরু করেছিল এবং তিন দিনে শেষ হওয়া ম্যাচের পুরোটা সময়ই বোলাররা সুবিধা পাওয়ায় আইসিসি থেকে ‘সতর্কবার্তা’ পাঠানো হযেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে।
এ নিয়ে শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে যোগ হলো ৩ ডিমেরিট পয়েন্ট। গত বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২ ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিল বাংলাদেশের ক্রিকেটের মূল মাঠ। পাঁচ বছরে ডিমেরিট পয়েন্ট ৫ দাঁড়ালে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হবে শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম।
বুন তার প্রতিবেদনে জানিয়েছেন, প্রথম দিন থেকেই পিচ ভাঙতে থাকায় ‘হঠাৎ বাউন্স’ করার সঙ্গে ‘অধারাবাহিক স্পিনে’ বোলাররাই সুবিধা পেয়েছে বেশি, যেখানে ব্যাটসম্যানরা ‘ন্যায্য সুযোগ’ পাননি।
মিরপুর টেস্টে শ্রীলঙ্কা জয় পায় ২১৫ রানের, তাতে ১-০ ব্যবধানে সিরিজও জিতে নেয় সফরকারীরা। তিন দিনে শেষ হওয়া এই টেস্টে ৬৮১ রান করতে দুদল হারায় ৪০ উইকেট। বোলারদের দাপটের ম্যাচে সর্বোচ্চ ৭০* রান আসে রোশেন সিলভার ব্যাট থেকে।-বাংলা ট্রিবিউন