এসডিজি বিষয়ক কর্মশালায় বক্তারা ||এসডিজি অর্জনে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে হবে

আপডেট: ডিসেম্বর ৮, ২০১৭, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


এসডিজি বিষয়ক কর্মশালায় বক্তব্য রাখছেন বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান-সোনার দেশ

এসডিজি অর্জনে স্থানীয়করণ বিষয়ক কর্মশালায় আলোচকরা বলেছেন, এসডিজি অর্জন করতে হলে বেসরকারি বিনিয়োগ অবশ্যই বাড়াতে হবে। কিন্তু বাংলাদেশের চিত্রটি ভিন্নতর। বিনিয়োগের সিংহভাগই সরকারিÑ বেসরকারি বিনিয়োগ মাত্র ১০ শতাংশ। সরকারের ভিশন বা ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে নিতে হলে এই বিনিয়োগ ১৪ শতাংশ করতে হবে। যা এসডিজির লক্ষ্য অর্জনেও সহায়ক হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাজশাহী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘এসডিজি অর্জনে স্থানীয়করণ, বিনিয়োগ পরিকল্পনা এবং উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা’ বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন, বিভাগীয় কমিশনার নূর উর রহমান। দিনব্যাপি অনুষ্ঠিত কর্মশালার উদ্বোধনীতে সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী জেলা প্রশাসক হেলাল মাহমুদ শরীফ। কর্মশালায় উদ্বোধনী ও সমাপনীতে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো. আমিনুল ইসলাম, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন ও আইসিটি) মো. জাকির হোসেন প্রমূখ।
প্রধান অতিথির ভাষণে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, উন্নয়ন স্থানীয় উদ্যোগেই হতে হবে। একে চাপিয়ে দেয়া যাবে না। লক্ষ্য অর্জনে কী করা দরকার, কার কী ভূমিকা হবে সেটাও নির্দিষ্ট হতে হবে। সেই লক্ষেই এই কর্মশালা। সমস্যা সম্ভাবনা ও সমস্যা সমাধানের উপায়গুলো নিয়েই সুচিন্তিত মতামত নেয়াই সরকারের উদ্দেশ্য।
তিনি বলেন, আমাদের মানসিকতার পরিবর্তন আগে দরকার। সামগ্রিক উন্নয়নের স্বার্থকে ব্যক্তি বা গোষ্ঠি স্বার্থে বিসর্জন দেয়া যাবে না। যার যার অবস্থান থেকেই এ দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করতে হবে।
তিনি বলেন, সরকারি সেবা নিতে সাধারণ মানুষের সহজ অভিগম্যতা নিশ্চিত করতে হবে। নতুবা কোনো উন্নয়নই টেকসই হবে না। এসডিজি বাস্তবায়নও সম্ভব নয়। সাধারণ মানুষের যোগাযোগের ক্ষেত্রে সরকারি কর্মকর্তাদের দরজা খোলা রাখতে হবে। কোনো ধরনের ওজর-আপত্তি, অসদাচরণ বরদাস্ত করা হবে না। কেউ যদি তা করেন, তা আমাদেরকে জানান আমরা যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নিবো।
কর্মশালার অংশীজনদের ১০ টি গ্রুপে ভাগ করে ২ টি অধ্যায়ে কারিগরি সেসন অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম অধ্যায়ে বিষয়ের ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিভাগীয় কমিশনার নূর উর রহমান এবং দ্বিতীয় অধ্যায়ে ‘ ব্যক্তি খাতে বিনিয়োগ পরিকল্পনা এবং উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক উপস্থাপনা করেন, বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের রাজশাহীর উপপরিচালক মো. আতাউল গনি।
কর্মশালায় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, ৯ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাসহ অন্যান্য অফিসের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, রাজনীতিক ও সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ