বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

ওষুধ খেলেই হয়ে যাবে ব্যায়াম!

আপডেট: January 16, 2020, 1:01 am

সোনার দেশ ডেস্ক


সুস্থ থাকতে অথবা শরীর ফিট রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম জরুরি হলেও, অনেকেই সময় করে উঠতে পারেন না। তবে অদূর ভবিষ্যতে হয়তো ব্যায়াম করার আর প্রয়োজন পড়বে না। ব্যায়ামের বিকল্প হিসেবে একটি ওষুধ খেয়ে নিলেই কাজ হয়ে যাবে!
অবিশ্বাস্য মনে হলেও গবেষকরা এমন সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন। বিজ্ঞানীরা এমন একটি প্রোটিন আবিষ্কার করেছেন যা ব্যায়ামের সময় শরীরে উৎপন্ন হয়। ধারণা করা হচ্ছে, সেই প্রোটিন দিয়ে তৈরি ওষুধ হয়তো একদিন ব্যায়ামের বিকল্প হয়ে উঠবে।
প্রোটিনের নাম সেসট্রিন। এটি ব্যায়ামের সময় প্রাকৃতিকভাবে শরীরে তৈরি হয় এবং শক্তিশালী পেশী গঠনে ভূমিকা রাখে। যুক্তরাষ্ট্রের একদল বিজ্ঞানী তাদের এই গবেষণায় আশা করেছেন যে, ভবিষ্যতে এই প্রোটিন ব্যবহার করে ওষুধ তৈরির মাধ্যমে নানা কারণে পেশীক্ষয় হ্রাস করার পাশাপাশি বার্ধক্যজনিত কারণেও পেশীক্ষয় হ্রাস করা সম্ভব হবে।
যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান ইউনিভার্সিটির অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ড. মায়ুংজিন কিম বলেন, ‘গবেষকরা এর আগে পর্যবেক্ষণ করেছেন- ব্যায়ামের পরে সেসট্রিন পেশীর মধ্যে জমা হয়।’
ড. কিমের নেতৃত্বে একদল বিজ্ঞানী এবার ব্যায়ামের ক্ষেত্রে এই প্রোটিনের সংযোগ বুঝতে গবেষণা করছেন। মাছি এবং ইঁদুরের ওপর গবেষণায় ইতিবাচক ফল মিলিছে।
তবে সাপ্লিমেন্ট হিসেবে সেসট্রিন খুব শিগগির তৈরি হবে এমনটা মনে করছেন না বিজ্ঞানীরা। ডা. কিম বলেন, ‘সেসট্রিন ছোট অণু নয়, তবে আমরা সেসট্রিনের ছোট অণুর সন্ধান করতে কাজ করছি।’
তবে বিজ্ঞানীরা এখনও নিশ্চিত নন, কীভাবে ব্যায়াম শরীরে সেসট্রিন তৈরি করে। ডা. কিমের মতে, তাদের গবেষণা এ ধরনের ওষুধ নিয়ে ভবিষ্যতে বিস্তারিত গবেষণায় সহায়তা করবে। ফলে যারা ব্যায়াম করার সময় পান না এমন লোকেদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে ব্যায়ামের বিকল্প ওষুধ।