ওয়ার্ড কার্যালয়ে অটো ও চার্জার রিক্সার স্মার্ট অটোমেশন নিবন্ধন ফ্রিতে করা হবে

আপডেট: জুলাই ১২, ২০১৯, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


মহানগরীতে চলাচলকারী সকল অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা, মালিক ও চালকগণের স্মার্ট অটোমেশন নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পূর্ণ ফ্রিতে ওয়ার্ড কার্যালয়ে সম্পন্ন করা হবে। ৩০টি ওয়ার্ড কার্যালয়ে ডাটা এন্ট্রি অপারেটরা সম্পূর্ণ ফ্রিতে এ কাজটি সম্পন্ন করবেন। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের উপ-যানবাহন শাখার অনলাইন রেজিস্ট্রেশন বিষয়ে ওয়ার্ড কার্যালয়ের ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় রাসিকের প্যানেল মেয়র ও ১২নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু সভাপতির বক্তব্যে একথা জানান।
তিনি বলেন, রাসিকের সকল কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশন করার জন্য ইতোমধ্যে নানাবিধ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এখন থেকে নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ড কার্যালয়ে সকল অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা, মালিক ও চালকগণের স্মার্ট অটোমেশন নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। নগরীতে চলাচলকারী সকল ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা (০৬আসন বিশিষ্ট), চার্জার রিক্সা (৩ আসন বিশিষ্ট) মালিক অটোরিক্সা চার্জার রিক্সা’র চালকগণের স্মার্ট অটোমেশন রিক্সা অনলাইন নিবন্ধন কার্যক্রম গত ১ জুলাই থেকে শুরু হয়েছে। অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা, মালিক ও চালকগণের স্মার্ট অটোমেশন নিবন্ধন কার্যক্রমে ভোটার আইডি কার্ড, নাগরিকত্ব সনদ ও দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি নিয়ে ওয়ার্ড কার্যালয়ে আসতে হবে। আগামীতে রাসিকের ওয়ার্ড ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তাদের এ কাজে সম্পৃক্ত করা হবে।
যানজট নিরসন ও অটো রিক্সা ও চার্জার রিক্সা সুশৃঙ্খলভাবে চলাচলের জন্য রাজশাহী সিটি করপোরেশন কর্তৃক নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে। নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়েছে- যেসকল অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা নিবন্ধনের মেয়াদ পাঁচ বছর অতিবাহিত হয়েছে তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হবে। যেসকল অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সার মালিকগণ রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ভোটার নয়, স্থায়ী নাগরিক নয় তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হবে। নতুন নিবন্ধনের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম বলবৎ থাকবে। একজন মালিকের নামে পাঁচটির অধিক অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা নিবন্ধন করা যাবে না। এক নামে পাঁচটির অধিক নিবন্ধিত অটোরিক্সা , চার্জার রিক্সার (পাঁচটি বাদে) নিবন্ধন বাতিল হবে। যেসকল অটোরিক্সা চার্জার রিক্সার নিবন্ধন পাঁচ বছর পূর্ণ হয়নি যেসকল অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সার মালিকগণ নবায়ন ফি প্রদান সাপেক্ষে অনলাইন নিবন্ধনের সুবিধা পাবেন। বিদ্যমান নিবন্ধিত চালকগণ নবায়ন ফি পরিশোধ পূর্বক নতুন নিবন্ধন করতে পারবেন। এই সুযোগ ২০১৯-২০ অর্থ বছরের প্রথম কোয়ার্টার (জুলাই-সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।
অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা সমূহ নিবন্ধন কার্ডের নম্বরের ভিত্তিতে জোড় ও বিজোড় অনুসারে দুইভাগে বিভক্ত করা হবে। জোড় ও বিজোড় নিবন্ধনধারী অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা সমূহ যথাক্রমে মেরুন ও পিত্তি রং (কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নিধারিত) বডি ও হুড উভয়ই একই করতে হবে।
মাসের ১ম ও ৩য় সপ্তাহে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত মেরুন রং এবং অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা দুপুর আড়াইটা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত পিত্তি রং অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা চলাচল করবে। মাসের ২য় ও ৪র্থ সপ্তাহে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত পৃত্তি রং এবং দুপুর ২টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত মেরুন রং এর অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা চলাচল করবে। তবে শুক্রবার ও সরকারী ছুটির দিনে সারাদিন এবং প্রতিদিন রাত সাড়ে ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত উভয় রং এর অটোরিক্সা, চার্জার রিক্সা চলবে। যানবাহন গুলো নিবন্ধন কার্ড ব্যতিত মহানগর এলাকায় চলাচল করতে পারবে না। অনিবন্ধিত যানবাহন আটক করে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এক বছর কোন অটোরিক্সা ও চার্জার রিক্সা নবায়ন না হলে তার নিবন্ধন বাতিল বলে গণ্য হবে।
প্রশিক্ষণ কর্মশালায় রাসিকের রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ মো. নূর-ঈ-সাঈদ, ট্যাক্সেশন কর্মকর্তা লাইসেন্স মো. সারোয়ার হোসেন, উপ ট্যাক্সেশন কর্মকর্তা (যান) কাজী আনোয়ারা দিল, সহকারী পোগ্রামার হেলালুজ্জামান রুপন, পরিদর্শক সাইদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ