কারা কর্তৃপক্ষ ফিরিয়ে দিলো খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮, ১:০০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে না পেরে ফিরে গেলেন তার তিন আইনজীবী। খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে রাজধানীর নাজিম উদ্দিন রোডে অবস্থিত পুরনো কারাগারের সামনে মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ৩টার কিছু পরে তারা আসেন। তবে পূর্বানুমতি থাকলেও সিদ্ধান্ত বদল করে আজ তাদের কারাগারের ভেতরে যাওয়ার অনুমতি দেয়নি কারা কর্তৃপক্ষ। বিকাল পৌনে পাঁচটার দিকে কারাগারের সামনে থেকে ফিরে যাওয়ার আগে এ দাবি করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।
এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাসুদ তালুকদার বলেন, অনুমতি থাকলেও আজকে আমাদের খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে দেয়নি কারা কর্তৃপক্ষ। আমরা এখন ফিরে যাচ্ছি।
তিনি আরও বলেন, ‘২০ তারিখ ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) মামলার তারিখ আছে। আশাকরি আগামীকাল বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দেখা করতে দিতে পারে।’
তার সঙ্গে থাকা অপর দুই আইনজীবী হচ্ছেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী ও অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া।
সম্প্রতি জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার হাজিরার সুবিধার্থে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বকশিবাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ থেকে ঢাকা ৫ম বিশেষ জজ আদালতের কার্যক্রম পুরনো কারাগারের নিচতলার প্রশাসনিক ভবনের ৭ নম্বর কক্ষে স্থানান্তিরিত করা হয়। গত ৫ সেপ্টেম্বর প্রথম সেখানে আদালত বসে। ওইদিন খালেদা জিয়া আদালতে গিয়ে বিচারককে বলেন, তিনি অসুস্থ। বার বার তিনি এ আদালতে আসতে পারবেন না। যতদিন ইচ্ছা সাজা দিয়ে দিন। বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) ধার্য তারিখে আবার সেখানে আদালত বসে। কিন্তু সেখানে আসতে কারা কতৃপক্ষের কাছে অস্বীকৃতি জানান খালেদা জিয়া। এর পরদিন ১৩ সেপ্টেম্বরও তিনি আদালতে না এলে বিচারক মামলাটির প্রধান আসামি খালেদা জিয়া আসবেন কি না তা তার আইনজীবীদের কাছে জানতে চান। তখন তার আইনজীবীরা আদালতকে জানিয়েছিলেন খালেদা জিয়া অসুস্থ। তিনি ঠিক কী কারণে আদালতে আসতে চাইছেন না সেটি তার সঙ্গে কথা বললে জানা যাবে। এজন্য আদালতের কাছে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি চান তার আইনজীবীরা। আদালত তখন তাদের দেখা করার ব্যাপারে কারা কর্তৃপক্ষকে জেলবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার আদেশ দেন। এই আদেশ অনুযায়ী আজ খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ পাওয়ার কথা ছিল তার আইনজীবীদের।
প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়ে এই বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে পুরনো ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া। তিনি দীর্ঘদিন থেকেই বয়সজনিত বিভিন্ন রোগসহ আর্থ্রাইটিসে ভুগছেন। কারা কর্তৃপক্ষের অনুরোধে বিএসএমএমইউ গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড গত ১৫ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে ১৬ সেপ্টেম্বর প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে তাকে একটি বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেওয়া হয়। তবে চিকিৎসকরা এজন্য বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তির সুপারিশ করলেও খালেদা জিয়ার নিজের পছন্দ ইউনাইটেড হাসপাতাল।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন