খাদিজার ডাক্তার হবার স্বপ্ন কি ভেঙ্গে যাবে!

আপডেট: অক্টোবর ২০, ২০১৯, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি


খাদিজা খাতুন-সোনার দেশ

শিবগঞ্জে মোসা. খাদিজা খাতুন নামের এক শিক্ষার্থীর মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পেয়ে অর্থাভাবে ভর্তি হওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সে শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্তি ইউনিয়নের রানীবাড়ি গ্রামের জালাল উদ্দিন ও জোসনা বেগমের ৭ সন্তানের মধ্যে ৩য়। মেডিকেলে ভর্তির মেধা তালিকায় তার ক্রমিক নম্বর ১৭৮১।

খাদিজার পিতা জালাল উদ্দিন জানান, তার কোন জমি জায়গা নেই। খাস জমিতে বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘেরা ৩ ঘর বিশিষ্ট ছোট্ট একটি বাড়িতে ৯ সদস্যের পরিবার নিয়ে বসবাস করি। পরিবারে একমাত্র আমিই উপার্জনকারি। নুন আনতে পান্তা ফুরানোর অবস্থায় মেয়ের মেডিকেলে ভর্তি করানো আমার কাছে দুঃস্বপ্ন বলে মনে হচ্ছে। খরচ যোগানোর চিন্তায় তিনি হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছি।

রানীবাড়ি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক জানান খাদিজা ছোট থেকে খুব মেধাবী। এসএসসিতে জিপিএ ৫ পেয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছিল। খাদিজা জানায় তার ডাক্তার হওয়ার খুব ইচ্ছা। মেডিকেলে ভর্তির মেধা তালিকায় সুযোগ পেয়েও অর্থের অভাবে ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। তাই সে সমাজের বিত্তবান বা রাষ্ট্রের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করছে।
প্রয়োজনে খাদিজাকে সহযোগিতার জন্য তাদের রকেট একাউন্ট-০১৭৯৪৬৫৮৫৮৯৮ ও বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর-০১৭৮০৫৯৭৫৩৫ টাকা পাঠাতে পারে বলেও জানান তিনি ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ