গর্জন

আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৮, ১:০১ পূর্বাহ্ণ

মোল্লা আমজাদ হোসেন


শক্ত কর বুকের ছাতি,
পাকাও হাতের মুঠি
দাঁড়াও দেহ সটান করে
বাহু করে লাঠি।
দুর্জয়কে জয় করতে
অঙ্গে পর বীরবেশ।
দস্যু প্রলয় মোকাবেলায়
গর্জে ওঠো বাংলাদেশ।

রণক্ষেত্রে বীরের তাজা
ঘোড়ার ক্ষুরে রক্ত
বীরঙ্গনার ছেলে তুমি
নাহি ভীতুর ভক্ত।
অস্ত্রহাতে আরাম কেন?
কর দ্রহির শিরচ্ছেদ।
দস্যু প্রলয় মোকাবেলায়
গর্জে ওঠো বাংলাদেশ।

ঘরে যদি থাকে তোমার
রূপসী প্রাণ প্রিয়া
ক্ষমা চেয়ে নিও তবে
নরম করে তোমার হিয়া
যাবার সময় প্রিয় জন কে
চুমু দিতো ওষ্ঠদেশ
দস্যু প্রলয় মোকাবেলায়
গর্জে ওঠো বাংলাদেশ।

প্রেমের মোহে আর থেকো না
প্রেমিকার আঁচলের তল
সবাই জানে একই কথা
প্রেমিক নাহি দুর্বল।
ফুল নয়, অস্ত্র হাতে
ছুটে চল যুদ্ধক্ষেত।
দস্যু প্রলয় মোকাবেলায়
গর্জে ওঠো বাংলাদেশ।

আর থেকো না বসে তুমি
ডুবু-ডুবু এই বেলায়
শূলপি নিয়ে চেপে বসো
দোল- দোলনীর ঐ ঘোড়া।
জীবন তোমার হয় যদি হোক
রক্ত দানে নিঃশেষ।
দস্যু প্রলয় মোকাবেলায়
গর্জে ওঠো বাংলাদেশ।