গাছের সঙ্গে শত্রুতা || সাপাহারে কৃষকের ৩৫০টি আম গাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষ

আপডেট: আগস্ট ২৫, ২০১৯, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

সাপাহার প্রতিনিধি


সাপাহারে এভাবে কৃষকের ৩৫০টি আম গাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষ -সোনার দেশ

নওগাঁর সাপাহারে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রাতের অন্ধকারে বিবদমান সম্পত্তিতে রোপনকৃত এক কৃষকের বাগানের প্রায় ৩৫০টি আম গাছ কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সদর ইউনিয়নের শিমুলডাঙ্গা গ্রামের কৃষক রফিক দিং ক্রয় সূত্রে প্রাপ্ত হয়ে গ্রামের পাশে প্রায় ৫০ শতক জমি দীর্ঘ ৪০/৪৫ বছর ধরে ভোগদখল করে আসছিল। বিগত প্রায় ৪ বছর পুর্বে ওই সম্পত্তি একই গ্রামের সিদ্দিকুুর রহমান তাদের কাছ থেকে ইজারা নিয়ে সেখানে উন্নত জাতের আম গাছ লাগিয়ে বাগান তৈরি করেন। হঠাৎ কিছু দিন আগে একই গ্রামের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম ও এমরান আলী ওই সম্পত্তি তাদের বলে দাবি করে জবর দখলের চেষ্টা করে। এরপর ওই সম্পত্তির বিষয় নিয়ে উভয় পক্ষের মধে স্থানীয় ভাবে বেশ কয়েকবার আপোষ মিমাংসার জন্য দেন দরবার বসে কিন্তু তাতে কোন ধরণের সমাধান হয় নি।
এরই জেরে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে প্রতিপক্ষ সাইফুল ইসলাম ও এমরান আলীর লোকজন বাগানে প্রবেশ করে প্রায় ৪ বছর বয়সের ৩৫০টি আম গাছ কেটে ফেলে। ফল দানকারী এধরনের বিপুল পরিমান আমগাছ কেটে ফেলায় লিজগ্রহণকারী ও জমির মালিক উভয়ের কয়েক লাখ টাকার সম্পদ ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে লিজ মালিক ও জমির মালিক জানিয়েছেন। এ বিষয়ে প্রতিপক্ষের সাইফুল ইসলামকে ফোনে পাওয়া না গেলে এমরান আলীর সঙ্গে কথা হয়। এমরান আলী জানান, ওই সম্পত্তি তারা একই দাতার কাছ থেকে রফিক গং এর পুর্বে ক্রয় করেছেন তারা গায়ের জোরে এতদিন ধরে ভোগদখল করলেও প্রায় সময় আমরা ও আমাদের লোকজন ওই সম্পত্ত দখলের চেষ্টা করে আসি। আইনত সম্পত্তি আমাদের হওয়া সত্বেও বার বার তাগাদা দিলে তারা জমির দখল না ছাড়ায় আম বাগান কেটে ফেলে সম্পত্তির দখল নিয়েছি বলে জানান তিনি ।
এবিষয়ে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো. আবদুল হাই নিউটন জানান, এ পর্যন্ত কোন পক্ষের কোন অভিযোগ তিনি পাননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ