গ্রামীণফোনের রাজস্ব আয় বেড়েছে ২ দশমিক ৯ শতাংশ

আপডেট: জুলাই ১৭, ২০১৭, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


গত প্রান্তিকের চেয়ে গ্রামীণফোনের রাজস্ব আয় বেড়েছে ২ দশমিক ৯ শতাংশ। দেশের শীর্ষ এই মোবাইল অপারেটর ৬ কোটি ১৬ লাখ সক্রিয় গ্রাহক নিয়ে ২০১৭ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিক শেষ করেছে, যা ২০১৭ সালের প্রথম প্রান্তিকের চেয়ে ২ দশমিক ৯ শতাংশ বেশি।
ডাটা গ্রাহকের সংখ্যা ২ কোটি ৭০ লাখ হওয়ায় গ্রামীণফোনের মোট গ্রাহকের শতকরা ৪৩.৯ ভাগ বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। এ বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে গ্রামীণফোন ৩২৪০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে, যা প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় ৫ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি।
গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল প্যাট্রিক ফোলি বলেন, ‘এই প্রান্তিক খুবই প্রতিযোগিতামূলক ছিল, বিশেষ করে গ্রাহক যোগ করার দিক থেকে। এই পরিবেশে থেকেও আমরা ডাটা এবং ভয়েস উভয় খাতেই প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পেরেছি।’
কর প্রদানের পর এই প্রান্তিকে নিট মুনাফা হয়েছে ৭৯০ কোটি টাকা। উচ্চতর রাজস্ব এবং পরিচালন দক্ষতার ফলে ইবিআইটিডিএ (অন্যান্য আইটেমের আগে) ১৯৯০ কোটি টাকা। এই প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৫.৮৭ টাকা।
গ্রামীণফোনের সিএফও দিলীপ পাল বলেন, ‘এই প্রান্তিকে রাজস্ব প্রবৃদ্ধি এবং আয় বৃদ্ধি, প্রবৃদ্ধি আর দক্ষতার প্রতি আমাদের বিশেষ মনোযোগের বহিঃপ্রকাশ।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, গ্রামীণফোনের বোর্ড অব ডিরেক্টরস পরিশোধিত মূলধনের শতকরা ১০৫ ভাগ অন্তর্র্বতী লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।’
এই প্রান্তিকে থ্রিজি ও টুজি কাভারেজ বিস্তারে এবং গ্রাহকের অভিজ্ঞতা উন্নয়নে ৩৩০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে গ্রামীণফোন । এই সময়ে ১৪১টি টুজি এবং ২২৫টি থ্রিজি বেস স্টেশন (বিটিএস) নেটওয়ার্কে যুক্ত হয়েছে। ফলে মোট টুজি বিটিএস এর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৩৬৩টি এবং থ্রিজি বিটিএস ১১ হাজার ৫৫৭টি।