চাঁপাইনবাবগঞ্জে জনপ্রতিনিধির সঙ্গে কর্মকর্তার দুর্ব্যবহারের অভিযোগ

আপডেট: January 20, 2020, 12:11 am

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি


ভোলাহাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহনাজ খাতুন অভিযোগ করেছেন তার সাথে উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার দুর্ব্যবহার করেছেন। বিষয়টি জানিয়ে তিনি গতকাল রোববার চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের একটি রেস্তোরায় সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে শাহনাজ খাতুন বলেন, একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির সঙ্গে সরকারি কর্মকর্তাদের এমন আচরণ তাকে বিব্রত করেছে।
লিখিত বক্তব্যে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দাবি করেন, গত ১৪ জানুয়ারি ভোলাহাট খাদ্য গুদামে কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয়ে অনিয়ম হচ্ছে জানতে পেরে সেখানে যান। এসময় সেখানে ধুলা ও চিটা মিশ্রিত ধান নেয়ার চিত্র দেখে ভোলাহাট উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সামিরুল ইসলামকে অবহিত করলে, উল্টো তিনি আমাকে খাদ্য গুদাম ছেড়ে চলে যেতে বলেন। না গেলে বিনা অনুমতিতে গুদামে আসায় আমার বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি দেন। পরে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল আলমকে সঙ্গে নিয়ে খাদ্য গুদামে আসেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ধান ক্রয়ের বিষয়ে আমার অভিযোগ না শুনে আমাকে অসম্মানজনক কথা বলেন। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে খোঁজ নেয়া আমার দায়িত্ব মনে করেই সেখানে গিয়েছিলাম কিন্তু, উল্টো বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছি, যা কষ্টের।
এ বিষয়ে ভোলাহাট উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সামিরুল ইসলাম বলেন, খাদ্যগুদাম একটি সংরক্ষিত এলাকা, সেখানে অনুমতি নিয়েই যেতে হয়। কিন্তু তিনি (মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান) সেখানে সেই বিধি অনুসরণ করেননি। তাই তাকে অনুরোধ করেছিলাম গুদাম এলাকা থেকে চলে যেতে।
এদিকে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে, তিনি এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিত প্রতিবেদন দিবেন বলে জানান।