‘চুক্তি ছাড়াই’ শেষ ট্রাম্প-কিমের ভিয়েতনাম সম্মেলন

আপডেট: মার্চ ১, ২০১৯, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উনের মধ্যে ভিয়েতনামে অনুষ্ঠিত দুইদিনের শীর্ষ সম্মেলন কোনো চুক্তি ছাড়াই শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।
“এবার কোনো চুক্তিতে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি, উভয় পক্ষই ভবিষ্যতে আরও বৈঠকের দিকে তাকিয়ে আছে,” বিবৃতিতে বলেছেন হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্স।
ভিয়েতনামের এ শীর্ষ সম্মেলনেই যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে একটি চুক্তির ঘোষণা দেবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছিল বলে জানিয়েছে বিবিসি।  কিম বলেছেন, হ্যানয়ে তার উপস্থিতিই প্রমাণ করে তিনি ‘নিরস্ত্রীকরণে ইচ্ছুক’।
“যদি আমি না চাইতাম, আমি কখনোই এখানে আসতাম না,” বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এমনটাই জানিয়েছেন উত্তরের এ শীর্ষ নেতা।
কিমের এ ভাষ্যের প্রশংসা এসেছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের মুখ থেকেও।
“সম্ভবত আপনাদের শোনা এটিই সবচেয়ে সেরা জবাব,” বলেছেন তিনি।
উত্তর কোরিয়াকে নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেতে একতরফাভাবে পারমাণবিক সব অস্ত্র পরিত্যাগের শর্ত দিয়েছিল ওয়াশিংটন। পিয়ংইয়ংয় যে এ শর্তে রাজি নয়, তা এবারের সম্মেলনেও ফের স্পষ্ট হল।
গত বছরের জুনে সিঙ্গাপুরে হওয়া প্রথম শীর্ষ বৈঠকের পর ট্রাম্প উত্তর কোরিয়া নিয়ে তার প্রশাসনের সফলতা ও অগ্রগতির কথা বারবার বলে আসছেন। এবারের সম্মেলনের আগে অবশ্য তিনি অন্যদের প্রত্যাশায় লাগাম টেনেছিলেন।
উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিমের প্রতি তার ‘ব্যাপক শ্রদ্ধা’ আছে জানিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, তিনি ‘সত্যিকারের চুক্তি’ চান।
“একদম শুরু থেকেই বলে আসছি- গতি আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়। কোনো রকেট বা ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা হচ্ছে না, এতেই আমি খুশি,” বলেছেন তিনি।
সূত্র : বিডিনিউজ