ছাত্রমৈত্রী নেতা সানী হত্যার রায় আংশিক সংশোধন করে হাইকোর্টে বহাল

আপডেট: জানুয়ারি ১২, ২০১৯, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


ছাত্রমৈত্রী নেতা রেজওয়ানুল চৌধুরী সানি-সোনার দেশ

রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের রায় কর্তৃক প্রদানকৃত ছাত্রমৈত্রী নেতা রেজওয়ানুল চৌধুরী সানি হত্যার মামলার রায় আংশিক সংশোধন করে বাকিটা বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ। গত মঙ্গলবার হাইকোর্ট বিভাগের একটি বেঞ্চ এ রায় দেন।
রায়ে হাইকোর্ট বিভাগ ফৌজদারী আপিল নং-৩২৭৯, ৩৪৬২, ৩৬০৭, ৩৬৫৭, ৪০০৮ ও জেলা আপিল নম্বর ১৫০/২০১২ মামলাগুলি খারিজ করেছেন। তবে ক্রিমিনাল আপিল নম্বর ৩৬৬৪/২০১২ মঞ্জুর করেছেন। ক্রিমিনাল আপিল নম্বর ৪০০৩/২০১২ আসামি খালিসুর রহমান রোকনকে ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক প্রদত্ত সাজার আংশিক মঞ্জুর করেছেন।
রায়ে নিজাম উদ্দিন ও সৈয়দ সাদ্দাম হোসেন তুষারকে ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক আরোপিত মৃত্যুাদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন। তবে আসামি সৈয়দ সাদ্দাম হোসেন তুষারকে ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক প্রদত্ত সাজা ভোগের নিমিত্ত তার প্রতি গ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যুর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এছাড়া আসামি ওহেদুজ্জামান বাবু, জাহেদুল ইসলাম মানিক, কৌসিকুর রহমান অনিক এবং মেজবাউর রহিম সুমনকে ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক আরোপিত যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ প্রত্যেকের ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছর দণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন। তবে আসামি খালিসুর রহমান রোকনকে ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক ৩০২/৩৪ ধারার অভিযোগের দায় হতে অব্যাহতি প্রদান করে দণ্ডবিধি ৩২৬/৩৪ ধারায় ১০ বছর কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। জরিমানা দিতে না পারলে অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এছাড়া সাজাপ্রাপ্ত আসামি ওহেদুজ্জামান বাবু, জাহেদুল ইসলাম মানিক, মেজবাউর রহিম সুমন, কৌসিকুর রহমান অনিক, উজ্জল ও মাসুমকে এই আদেশের তারিখ হতে ১৫ দিনের মধ্যে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আত্মসমর্পণ করা না হলে ওয়ারেন্ট ইস্যু করা হবে।
তবে রায়ে আসামি আব্দুল মতিনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়েছে। অন্য কোনো মামলায় প্রয়োজন না হলে তা মুক্তির আদেশ দিয়েছেন আদালত।
দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর এন্তাজুল হক বাবু জানান, হাইকোর্ট রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের তৎকালীন বিচারকের দেয়া রায় আংশিক সংশোধন করে বাকিটা বহাল রেখেছেন এবং এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ডেথ রেফারেন্স নম্বর ৩০/২০১২ এর রায়ের সংক্ষিপ্ত কপি, এই আদেশের অনুলিপি ও গ্রেফতারি পরোয়ানাসহ রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার এবং রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র তত্ত্বাবধায়ক বরাবর প্রেরণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ৭ জানুয়ারি রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র রেজওয়ানুল ইসলাম সানী পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই ইনস্টিটিউটের উল্লিখিত ছাত্রদের দ্বারা নির্মমভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ