জনগণ পুনরায় ভোট দিয়ে আ’লীগকে বিজয়ী করবে : লিটন

আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০১৮, ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


বিনোদপুর বাজারে ছাত্রলীগ নেতা সাধুর স্মরণ সভায় বক্তব্য দেন মহানগর আ’লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন-সোনার দেশ

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, আগামি সিটি করপোরেশন ও জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণ ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করবে। আগামিতে মানুষ আর ভুল করবে না। তারা শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকারকে বিজয়ী করে দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখবে।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে নগরীর মতিহার থানার বিনোদপুর বাজারে নিহত ছাত্রলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম সাধুর স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন।
খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘সত্য কখনো চাপা থাকে না। মিথ্যা দিয়ে সমগ্র জাতিকে বোকা বানানো যায় না, অন্ধকারে রাখা যায় না। সাময়িকভাবে বোকা বানানো গেলেও তা বেশি দিন টিকে না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের চূড়ান্ত শিখরের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। মানুষ চায় না আগুনের সন্ত্রাস। জামায়াত-বিএনপি গাড়িতে আগুন দিয়েছে, তাজা তাজা মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছে। এমনকি শত শত গাছ পর্যন্ত কেটে দিয়েছে ২০১৪ সালের নির্বাচনের পর। সেই সন্ত্রাস করে কোনো লাভ হয় নি। মানুষের সমর্থন পায় নি তারা। তাদের আন্দোলন ব্যর্থ হয়েছে।
খায়রুজ্জামান লিটন আরো বলেন, আগামিতে অনুষ্ঠিতব্য সিটি কর্পোরেশন ও জাতীয় নির্বাচনে বাংলাদেশের মানুষ নিঃসন্দেহে আর ভুল করবে না। নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করবে।
ছাত্রলীগ নেতা তৈরির কারখানা উল্লেখ করে লিটন বলেন, ইসলামী ছাত্র শিবিরের সন্ত্রাসী হামলায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও তার আশাপাশের এলাকায় অনেক ছাত্রলীগ নেতাকে হত্যা করেছে। তারা মনে করেছে, তাদের এমন নৃশংসতার ভয়ে আর কেউ ছাত্রলীগ করবে না। কিন্তু তা হয়নি। ছাত্রলীগ নেতা তৈরির কারখানায় পরিণত হয়েছে। বর্তমানে আওয়ামী লীগের জাতীয় নেতৃত্বে যারা আছেন, তারা কোথাও না কোথাও ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র মতিহার থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম সাধু ১২ জানুয়ারি ১৯৯৬ সালে খালেদা জিয়া সরকারের চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও গুন্ডা বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে নিহত হয়। এ উপলক্ষে শুক্রবার শহীদের ২২তম শাহাদত বার্ষিকী স্মরনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, রাজশাহী মহানগরের উদ্যোগে বিকাল ৪টায় বিনোদপুর বাজারে কালো ব্যাজ ধারণ, শহীদের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, শোক র‌্যালি, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য প্রফেসর আব্দুল খালেক শহীদের স্মৃতিচারণ করেন এবং বিভিন্ন দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহমেদ লিমন, কৃষি সম্পাদক জহির উদ্দিন তেতু, ৩০ (দক্ষিণ) নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম শহিদ, সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান খলিল, শহীদ সাধুর বড় ভাই আব্দুল আজিজ, ৩০ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন।
নগর ছাত্রলীগের সভাপতি রকি কুমার ঘোষ এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিব এর পরিচালনায় এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল মোমিন, শফিকুজ্জামান শফিক, সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকার, মীর তৌহিদুর রহমান কিটু, রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক আব্দুল ওয়াহেদ খান টিটু, রাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু, রুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান নিবিড়।

Don`t copy text!