‘জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করতে হবে’

আপডেট: জুলাই ১২, ২০১৮, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


জনসংখ্যা দিবসের সম্মাননা গ্রহণ করছেন বাগামারা উপজেলা চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু-সোনার দেশ

রাজশাহীতে নানা আয়োজনে পালিত হলো বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহী বিভাগ ও জেলা পর্যায়ে র‌্যালি, শ্রেষ্ঠ কর্মী ও প্রতিষ্ঠানকে সনদপত্র প্রদান ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘পরিকল্পিত পরিবার সংরক্ষিত মানবাধিকার’ ।
দিবসটি পালনে গতকাল বুধবার সকালে নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকা থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি নগররীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে কলাবাগান এলাকার পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে গিয়ে শেষ হয়। পরে এখানে আলোচনাসভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। পরিবার পরিকল্পনা রাজশাহী বিভাগীয় পরিচালক শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান।
তিনি বলেন, জনসংখ্যা বৃদ্ধি দেশের জন্য একটি সংকট । এই সংকট নিরসনে কাজ করছে সরকার। দেশের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে সকলকে সম্মিলিত ভাবে কাজ করতে হবে। জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করতে পারলে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে।
তিনি আরো বলেন, পরিবার পরিকল্পনা হলো সন্তানকে মানুষের মতো মানুষ করা। তাদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করা। অধিক জনসাংখ্যা আমাদের সম্পদে রূপান্তরিত করতে হবে। দেশে কর্মসংস্থানের সংকট রয়েছে। সবাই ছেলে মেয়েকে লেখা পড়া করায় ভালো চাকরির আশায়। ছেলে-মেয়েরা যদি লেখাপড়ায় তেমন ভালো না করে তাহলে আমাদের কর্মমূখি শিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে। বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আবদুল কাদের, স্বাস্থ্য বিভাগের বিভাগীয় পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আবদুর রাজ্জাক খান, রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. সঞ্জিত কুমার সাহা। প্রতিপাদ্যের উপর আলোকপাত করে বক্তব্য দেন, পরিবার পরিকল্পনা রাজশাহী বিভাগীয় উপ-পরিচালক ডা. নাসিম আখতার।
সূর্যের হাসি: নগরীর মহিলা স্বেচ্ছাসেবি সংস্থায় পরিচালিত সূর্যের হাসির ক্লিনিকের উদ্যেগে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত হয়েছে। বিকেল সাড়ে তিনটায় নগরীর কায়েদাড়া শাখায় দিবসটি পালিত হয়। সার্ভিস প্রমোটর নাজনীন পারভিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন, ক্লিনিক ম্যানেজার সাজ্জাদ হোসেন। এছাড়া আরো বক্তব্য দেন, প্যারামেডিক আলিয়া নূর। ঊল্লেখ্য এবারের বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর থেকে সিটি করপোরেশন এলাকায় শ্রেষ্ঠ এনজিও হিসেবে তিলোত্তমা মহিলা স্বেচ্ছাসেবি সংস্থাকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এছাড়া ৫৩ জনকে বিনামূল্যে পরিবার পরিকল্পনা সামগ্রী বিতরণ করা হয়।