জিপির রাজস্ব আয় বেড়েছে ১১ শতাংশ

আপডেট: এপ্রিল ২৪, ২০১৭, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



দেশের মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ২০১৭ সালের প্রথম প্রান্তিকে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ১১ দশমিক ১ শতাংশ বেশি রাজস্ব আয় করেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে গ্রামীণফোন মোট ৩ হাজার ৬০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে। এই সময়ে ডাটা থেকে এ মোবাইল ফোন অপারেটরের রাজস্ব আয় বেড়েছে ৬৪.৯ শতাংশ ও ভয়েস কল থেকে বেড়েছ ৭.১ শতাংশ।
বছরের প্রথম প্রান্তিক শেষে গ্রামীণফোনের মোট গ্রাহক সংখ্যা দাড়িয়েছে ৫ কোটি ৯৯ লাখে। যা ডিসেম্বর ২০১৬ এর তুলনায় ৩.৩ শতাংশ বেশি। এই প্রান্তিকে ৭ লাখ নতুন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী যোগ হওয়ায় মোট ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৫২ লাখে। এর ফলে গ্রামীণফোনের মোট গ্রাহকের ৪২.২শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। গ্রামীণফোনের সিইও পেটার ফারবার্গ বলেন,‘আমরা বছরের শুরুতেই একটি ভালো প্রান্তিক পার করেছি। আমাদের ডাটা ও ভয়েস রাজস্বের প্রবৃদ্ধি অব্যাহত আছে যা থেকে বোঝা যায় যে সেরা মানের নেটওয়ার্ক এবং সহজ সেবার বিষয়ে আমাদের যে প্রতিশ্রুতি আছে তা গ্রাহকদের জন্য অধিকতর মূল্য সংযোজন করছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘এই প্রান্তিকে আমরা ভয়েস ট্যারিফে স্থিতাবস্থা এবং ডাটা থেকে আয়ের উন্নতি লক্ষ্য করেছি। পরিচলন দক্ষতার বিষয়ে আমাদের গভীর মনোযোগ সম্মানিত শেয়ারহোল্ডারদের জন্য অধিকতর মূল্য সৃষ্টি করছে।’
আয়কর প্রদানের পর ২০১৬ এর ১ম প্রান্তিকের ২০.৪ শতাংশ মার্জিন সহ ৫৬০ কোটি টাকা মুনাফার তুলনায় ২০১৭ এর ১ম প্রান্তিকে নিট মুনাফা হয়েছে ২১.৪ শতাংশ মার্জিন সহ ৬৬০ কোটি টাকা। দক্ষ পরিচলন ব্যয় ব্যবস্থাপনার কারণে এই প্রান্তিকে ঊইওঞউঅ (অন্যান্য আইটেমের আগে) হয়েছে ১ হাজার ৭৮০ কোটি টাকা। এই প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৪.৮৬ টাকা।
গ্রামীণফোন প্রথম প্রান্তিকে ৩জি নেটওয়ার্ক স্থাপন, ২জি নেটওয়ার্ক এর মানোন্নয়ন এবং দক্ষতা বৃদ্ধিতে ৪৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। গ্রামীণফোন এই সময় ২৩৮টি ২জি এবং ৭৭৬ টি ৩জি বেস স্টেশন স্থাপন করেছে যার ফলে কোম্পানির ২জি সাইটের সংখ্যা হয়েছে ১২ হাজার ২২২টি এবং ৩জি সাইটের সংখ্যা হয়েছে ১১ হাজার ৩৩২ টি। এর ফলে দেশের মোট জনসংখ্যার ৯৯ ভাগেরও বেশি ২জি এর আওতায় এবং ৯১ ভাগ ৩জির আওতায় এসেছে।এদিকে দেশের বৃহত্তম করদাতা গ্রামীণফোন এই প্রান্তিকে সরকারী কোষাগারে কর, ভ্যাট, শুল্ক ও লাইসেন্স ফি হিসেবে ১ হাজার ১৮০ কোটি টাকা দিয়েছে যা কোম্পানির মোট রাজস্ব আয়ের ৩৪.৪ শতাংশ।