জয়পুরহাটে আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো তিনদিনের ইজতেমা

আপডেট: ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭, ১:৩৪ পূর্বাহ্ণ

জয়পুরহাট প্রতিনিধি


জয়পুরহাটে তিনদিনের ইজতেমার আখেরি মোনাজাত -সোনার দেশ

বিশ^বাসীর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে প্রায় তিন লাখ মুসল্লির আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে জয়পুরহাটে শেষ হলো তিন দিনের তাবলীগ জামাতের ইজতেমা। জয়পুরহাট শহরের চুনাপাথর প্রকল্পের বিশাল ময়দানে প্রায় তিন লাখ মুসল্লির অংশগ্রহণে সর্ববৃহৎ আখেরি মোনাজাত শুরু হয় গতকাল শনিবার দুপুর ১২টায়। দোয়া পরিচালনা করেন ঢাকা কাকরাইল জামে মসজিদে ফ্যায়সাল হযরত মাও. ফারুক।
আখেরি মোনাজাতে জয়পুরহাট এক আসনের সাংসদ সামছুল আলম দুদু, সাবেক সাংসদ আব্বাছ আলী মন্ডল, জেলা প্রশাসক মোকাম্মেল হক, পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান, জয়পুরহাট জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, জয়পুরহাট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, কালাই উপজেলা চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলন, আক্কেলপুর উপজেরা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কমল, পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। জয়পুরহাট, নওগাঁ, দিনাজপুরসহ দেশ-বিদেশের প্রায় তিন লাখ মুসল্লি এই ইজতেমায় অংশ নেন।
পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক জানান, মুসল্লিগনের অজু, গোসলের পানি সরবরাহের জন্য ১১টি সাবমার্সেবল পাস্প ছাড়াও এক হাজার ৬শ অস্থায়ী টয়লেট স্থাপন করা ছাড়াও বিদেশি মেহমান, বৃদ্ধ ও নারী মুসল্লীদের ইবাদতের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়। মুসল্লিগণের তিন দিনের শান্তিপূর্ণ ইবাদত শেষে দেশ, জাতি ও বিশ^ শান্তির জন্য বিশেষ মোনাজাত করা হয়। নিরাপত্তা রক্ষায় ২৩৫ জন পুলিশ সদস্যর পাশাপাশী র‌্যাবের সার্বক্ষণিক টহল দল ছাড়াও তাবলীগ জামাতের কয়েকশ স্বেচ্ছাসেবক সার্বক্ষণিক মোতায়েন ছিল বলে জানান জয়পুরহাট পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ