জয়পুরহাটে চারজনের দেহে করোনা শনাক্ত

আপডেট: April 25, 2020, 1:29 pm

জয়পুরহাট প্রতিনিধি :


জয়পুরহাট জেলায় এ পর্যন্ত করোনা সন্দেহে ৩৪৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবরেটারিতে পাঠানো হলে ১৫০ জনের রেজাল্ট পাওয়া যায়। তার মেধ্য ১৪৬ জনের নমুনা নেগেটিভ পাওয়া গেলেও ৪ জনে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। এ পর্যন্ত জেলায় মোট ৯০৪ জনকে সেফ কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছিলো তাদের মধ্যে ৪১৪ জন অবমুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে ৪৯০ জন কোয়ারেন্টাইনে আছেন। জেলায় কোভিড-১৯ চিকিৎসার প্রস্তুতি হিসাবে সরকারিভাবে ২৪০ টি বেড, ১৪ জন ডাক্তার ও ১৪ জন নার্স প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তা ছাড়াও চিকাৎসায় ব্যক্তিগত সুরক্ষায় ২৯১২ সেট পিপিই মজুদ রাখা হয়েছে। জেলার ৫ টি উপজেলা ও পৌর এলাকায় এ পর্যন্ত সরকারিভাবে ৬৭৯১০টি পরিবারের মধ্যে ৬৭৯.১০০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও ৭৩৮৫ টি পরিবারের মাঝে নগদ ৩৪,২০,০০০ টাকা বিতরণ করা হয়েছে।
সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার উদ্যোগে পৌর শহরের মাছবাজার, হাটসহ কাচাবাজার বৃহৎ পরিসরে নিকটস্থ কলেজের মাঠে ও কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে স্থানান্তর করা হয়েছে। বিশ্ব মহামারি করোনাভাইরাস এর সংক্রমণ প্রতিরোধে জয়পুরহাট সদর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক গৃহীত কর্মসূচি কার্যক্রমে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের হলরুমে একটি প্রেস কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রেস কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাকীর হোসেন। সভায় যে কোনো মূল্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং ত্রাণ বিতরণে যে কোনো ধরনের অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ