জয়পুরহাটে শ্মশানকালী পূজা, রাধাগোবিন্দ লীলাকীর্তন ও সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

আপডেট: জুন ২৮, ২০১৮, ১:০১ পূর্বাহ্ণ

জয়পুরহাট প্রতিনিধি


জয়পুরহাট সদরের ভাদসা ইউপির পালী শ্মশান প্রাঙ্গনে পালি-নূরপুর, চকমোহন ত্রিমূখী মহা শ্মশান কমিটির আয়োজনে শ্রী শ্রী শ্মশান কালী পূজা, শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দের লীলা কীর্তন ও সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, পালী-নূরপুর, চকমোহন মহা শ্মশান কমিটির সভাপতি মুকুল চন্দ্র মন্ডল। প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন, জয়পুরহাট জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট। অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন ও বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা অ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল পিপি। অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য দেন ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার হোসেন স্বাধীন, ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রতন কুমার খাঁ, জেলা পূজা উদ্যাপন কমিটির সভাপতি অ্যাড. হৃষিকেশ, সাধারণ সম্পাদক সুমন সাহা, বাংলাদেশ আদিবাসী সংঘ জেলা শাখার সভাপতি কার্তিক চন্দ্র সিং, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দুস্থ মানবতার সেবা সংস্থা নির্বাহী পরিচালক বাবু অপূর্ব কুমার সরকার, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী শরিফুল ইসলাম প্রমুখ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আদিবাসী নেতা, ইউপি সদস্য পুতুল রানী পাহান, ইউপি সদস্য চিত্তরঞ্জন মন্ডল, কমল মিনজি, মাস্টার শ্যামা চরণ সিং, পরিমল কুর্মী, কার্তিক পাহান, চঞ্চল পরিমল, মানিক পাহান ও ইউপি সদস্য খাজামুদ্দিন মন্ডল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সার্বিক উপস্থাপনায় ছিলেন পালি-নূরপুর, চকমোহন ত্রিমূখী মহা শ্মশান কমিটির সাধারণ সম্পাদক হীরেন্দ্রনাথ সরকার।
আদিবাসী নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে জানান জেলায় মুসলিম-হিন্দু সকলের মরদেহ ধর্মীয় আচরণে কবরস্থ ও দাহ করণে কবরস্থান ও শ্মশান থাকলেও জেলার ৭০ হাজার আদিবাসীদের মরদেহ ধর্মীয়ভাবে শেষকৃত্যের কোন ব্যবস্থা নেই। পালী-নূরপুর, চকমোহন মহা শ্মশান কমিটি এই সর্ব প্রথম এমন শ্মশান করতে দশমিক ৫২ শতক জমি কিনার জন্য বায়নার উদ্যোগ নিয়েছে। এতে ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা ব্যয় হবে। এত টাকা সংস্থানে গরীব অসহায় পিছিয়ে পড়া জাতিগোষ্ঠী আদিবাসীদের নেই। এ কারণে বিত্তবান ও সরকারের সহায়তা তারা কামনা করছে। অনুষ্ঠান শেষে দেশ মাতৃকার মানবতার কল্যাণ, সুখ-শান্তি, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি কামনায় প্রার্থনা করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ