ডানহাতি-বাঁহাতি স্পিনার!

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৭, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


স্ট্রাইকে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। বোলার বল করলেন, ডানহাতি অফ স্পিন। একটি রান হলো। এবার স্ট্রাইকে ডানহাতি ব্যাটসম্যান। বোলার আম্পায়ারকে জানালেন, বল করবেন বাঁহাতে! একইসঙ্গে ডানহাতি ও বাঁহাতি স্পিনার!
বোলারের নাম অক্ষয় কার্নেওয়ার। চেন্নাইয়ে প্রস্তুতি ম্যাচে মঙ্গলবার ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের হয়ে অস্ট্রেলিয়াকে চমকে দিয়েছেন এই অলরাউন্ডার। বল করতে পারেন তিনি দুহাতেই। এদিন ৬ ওভার বোলিং করেছেন এই স্পিনার। ডানহাতি ব্যাটসম্যানের জন্য প্রতিবারই বাঁহাতি স্পিন করেছেন, বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের জন্য ডানহাতি। খুব বেশি সুবিধা অবশ্য করতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়ার রান পাহাড়ের ম্যাচে ৬ ওভারে ৫৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ট্রাভিস হেডের উইকেট।
বাঁহাতি হেডকেই প্রথম বলটি করেছিলেন অক্ষয়। এরপর ডানহাতি মার্কাস স্টয়নিস যান স্ট্রাইকে। আম্পায়ার যখন বললেন, বোলার এবার বাঁহাতে বল করবেন, শুরুতে বুঝেই উঠতে পারেননি স্টয়নিস।
“আমি আসলে বুঝতে পারিনি আম্পায়ার আমাকে কি বলার চেষ্টা করছিলেন। তিনি বলার চেষ্টা করছিলেন, ‘বোলার এবার বাঁহাতে বোলিং করবে।’ এটি অসাধারণ ব্যাপার। এমন কিছু আমি আগে দেখিনি। কখনোই না।” বোলিংয়ের শোধ অবশ্য ব্যাটিংয়ে কিছুটা তুলেছেন অক্ষয়। চার ছক্কায় ২৮ বলে করেছেন ৪০ রান। ২৪ বছর বয়সি অক্ষয় বিদর্ভের হয়ে খেলেছেন দুটি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ। লিস্ট ‘এ’ খেলেছেন ১৭টি। আইপিএলে ছিলেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু দলে। শুরুতে শুধু ডানহাতি স্পিনারই ছিলেন। তবে ব্যাটিংয়ে ছিলেন বাঁহাতি, থ্রো করতেন বাঁহাতেই। ১৩ বছর বয়সে তার সেই সময়ের কোচ বালু নাভগারে পরামর্শ দেন, বাঁহাতি স্পিনটাও শিখতে। বছর দুয়েকের অনুশীলনে অক্ষয় আয়ত্ত করেন বাঁহাতি স্পিন। বিভিন্ন ধাপ পেরিয়ে এরপর উঠে আসেন ভারতের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট পর্যায়ে। উচ্চতা ছয় ফুটের কাছাকাছি। খুব বেশি টার্ন অবশ্য আদায় করতে পারেন না, বোলিং করে যান লাইন-লেংথে। দ্ইু হাতে বোলিং আর মারকুটে ব্যাটিং মিলিয়ে বেশ সাড়া জাগিয়েছেন ভারতের ক্রিকেট মহলে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে সুযোগ পাওয়া তার এগিয়ে চলারই প্রতিফলন। সাম্প্রতিক সময়ে দুই হাতে বোলিং করে সাড়া জাগানো বোলার অবশ্য অক্ষয়ই প্রথম নন। গত বছর পাকিস্তানের একটি প্রতিভা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা থেকে বেরিয়ে আসেন ফাস্ট বোলার ইয়াসির জান। দুই হাতেই বোলিং করতে পারেন প্রায় ৯০ মাইল গতিতে। তার বোলিংয়ের ভিডিও হইচই তুলেছিল সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ১৯৯৬ সালে মালেয়েশিয়ায় এসিসি ট্রফিতে জাপানের তেতসুয়ো ফুজি বল করেছিলেন দুই হাতেই। বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচে পরপর দুই বলে দুই হাতে বোলিং করে আউট করেছিলেন শাহরিয়ার হোসেন ও আমিনুল ইসলামকে।-বিডিনিউজ