ঢাবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে আবারও নীল দলের জয়

আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০১৮, ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শিক্ষক সমিতির ২০১৯ সালের কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচনে আবারও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছেন আওয়ামীপন্থী নীল দলের প্রার্থীরা। বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের প্যানেল সাদা দল শুধু একটি সদস্য পদে জয়ী হয়েছেন। মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) বিকাল চারটায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাব ভবনে নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী।
নির্বাচনে নীল দল থেকে টানা তৃতীয়বারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন, অধ্যাপক মাকসুদ কামাল। দ্বিতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী হয়েছেন, অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম। মাকসুদ কামাল পেয়েছেন ১০৩৬ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা দলের প্রার্থী অধ্যাপক আখতার হোসেন খান পেয়েছেন ৪৫৩ ভোট।
সাধারণ সম্পাদক পদে নীল দলের প্রার্থী অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম ৮০৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি সাদা দলের প্রার্থী অধ্যাপক লুৎফর রহমান পেয়েছেন ৬৭৯ ভোট।
এছাড়া নীল দল থেকে সহ-সভাপতি পদে উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন মো. ইমদাদুল হক (৮৬০ ভোট), যুগ্ম-সম্পাদক পদে ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক তাজিন আজিজ চৌধুরী (৭৭৭ ভোট) এবং কোষাধ্যক্ষ পদে একাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ (৮৯৮ ভোট) বিজয়ী হন।
পাশাপাশি সদস্য পদে নীল দল থেকে গণিত বিভাগের অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার (৮৬৫ ভোট), সমাজবিজ্ঞান বিভাগের জিনাত হুদা (৮২৫ ভোট), চারুকলা অনুষদের নিসার হোসন (৭৬৯ ভোট), লেদার টেকনোলজি অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিউটিটের পরিচালক অধ্যাপক মো. আফতাব আলী শেখ (৯৪২ ভোট), ক্রিমিনোলজি বিভাগের অধ্যাপক মো. জিয়াউর রহমান ( ৯০৩ ভোট), খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক নিজামুল হক ভূঁইয়া (৯০১ ভোট), সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিম (৭৮৩ ভোট), অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাবিতা রিজওয়ানা রহমান (৮৫৬ ভোট) ও বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সৌমিত্র শেখর দে (৮০৪ ভোট) বিজয়ী হয়েছেন।
সাদা দলের তরফে সদস্য পদে কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. হাসানুজ্জামান ৭৫৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন।
নির্বাচনের পরিবেশ সম্পর্কে জানতে চাইলে কমিশনার তোফায়েল আহমেদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘নির্বাচন আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষকরা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। মোট ভোটারের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৯৮৮ জন। এর মধ্যে ১ হাজার ৫৫১ জন ভোট দিয়েছেন। ভোট গ্রহণকালে সব প্রার্থী নির্বাচন পরিষদকে সহযোগিতা করেছেন। কোনও প্রার্থীই কোনও ব্যাপারে অভিযোগ করেননি। কয়েকজন ভোটারের নাম লিস্টে ছিল না। পরে তাদের পরিচয় নিশ্চিত করে ভোট দেয়া সুযোগ করে দেয়া হয়।’
সাদা দলের সভাপতি পদে পরজিত প্রার্থী অধ্যাপক ড. মো. আখতার হোসেন বাংলা টিবিউনকে বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। আমাদের কোনও অভিযোগ নেই। নির্বাচনের পরে সবাই মিলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কাজ করি। অতীতের মতো নির্বাচিতদের যে কোনও কাজে আমরা সহযোগিতা করবো।’
সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়া অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের উচ্চ শিক্ষা, জীবন যাত্রার মান, গবেষণা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। এ জয়ের মাধ্যমে আমারা চলমান কাজ শেষ করতে পারবো। আমরা পরবর্তী সময়ে ঢাবির শিক্ষার্থীদের মান মর্যাদা বাড়াতে অবদান রাখতে পারবো। সেইসঙ্গে জাতীয় নির্বাচনের আগে এই জয়ের মাধ্যমে আমরা দেখতে পায় দেশের আলোকিত শিক্ষক সমাজ কী চেয়েছেন। আশা করি, জাতীয় নির্বাচনেও এর একটা প্রতিফলন ঘটবে।’ তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন