তারা নিজেদের জন্য কখনো কিছু চাননি : রেণী

আপডেট: নভেম্বর ৯, ২০১৯, ১:১১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


স্মরণসভায় বক্তব্য দেন বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আক্তার রেণী সোনার দেশ

নগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহিন আক্তার রেণী বলেন, আমি প্রয়াত ন্যাপ সভাপতি অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ’র স্বরণ সভায় আসতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত ও গর্বিত। কারণ এখানে এসে আমি মোজাফফর আহমদ সর্ম্পকে অনেক কিছু জানতে পেরেছি। বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতা ও অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ তারা নিজের জন্য কখনো কিছু চাননি। তারা তাদের অতীত, বর্তমান, ভবিষ্যৎ কিছুই ভাবেননি। বরং তারা এমন একটি দেশের স্বপ্ন দেখেছেন, যে দেশ হবে সন্ত্রাসমুক্ত, স্বাধীন ও সার্বভৌমত্ব। আর এ স্বপ্ন বাস্তবায়নেই এতো আন্দোলন, এতো সংগ্রাম ।
বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) সভাপতি প্রয়াত অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ’র স্বরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় নগরীর জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে এ স্বরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
তিনি আরো বলেন, আমরা যদি অতীত ও বর্তমান রাজনীতি বিশ্লেষণ করি তাহলে দেখবো আমি কি ভাবে আমার নামটি ফোটাবো, কিভাবে আমার প্রচার প্রচারণা চালাবো এই দিকেই আমরা নজর দিই। কিন্তু আমরা যদি অতীতে দৃষ্টি রাখি তাহলে দেখবো তারা নিজের জন্য কোনো কিছুই চিন্তা করেননি। জাতীয় চার নেতার অন্যতম কামারুজ্জামান তার মৃত্যুর পর আমরা দেখেছি তার একাউন্টে স্বল্প পরিমাণে টাকা ছিল। সেই মানুষটি চাইলেই পারতেন নিজের ধন-সম্পত্তি করতে। কিন্তু তারা কখনো আদর্শের সাথে বেইমানি করেন নাই। জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন। এছাড়া তিনি সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
ভাষা সৈনিক আবুল হোসেন’র সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, কবি ও সাহিত্যিক অধ্যাপক রুহুল আমিন প্রমানিক, আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা নুরুল হুদা সরকার, জাসদ কেন্দ্রীয় সদস্য শফিউর রহমান, সিপিবি জেলা সভাপতি এনামুল হক, ঐক্য ন্যাপ’র সাধারণ সম্পাদক আলী আর্সলান অপু, ওয়ার্কাস পর্টি’র জেলা সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, জেলা ন্যাপ’র সাধারণ সম্পাদক অ্যাড মোস্তাফিজুর রহমান খান। অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রয়াত ন্যাপ সভাপতি অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ’র লেখা প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। এছাড়া তার স্বরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
এ সময় বক্তারা অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ’র বিপ্লবী জীবন সর্ম্পকে ব্যাপক আলোচনা করেন। তারা বলেন, অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ অত্যন্ত সাদাসিধে জীবন যাপন করতেন। তার সারাটা জীবন কেটেছে দেশের মানুষের স্বাধিকার প্রতিষ্ঠায়। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার নেতৃত্বে ন্যাপ যে ভূমিকা রেখেছে তা না হলে দেশ আদৌ স্বাধীন হতো কি না তা এখন গবেষণার বিষয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ