বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের অভিশংসনের পক্ষে পার্লামেন্টের রায়

আপডেট: December 9, 2016, 11:43 pm

সোনার দেশ ডেস্ক



দুর্নীতির অভিযোগে ছয় সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভের পর দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট পার্ক জিউন হাইকে অভিশংসনের পক্ষে রায় দিয়েছে দেশটির পার্লামেন্ট সদস্যরা।
বিবিসি জানিয়েছে, বিরোধী দলগুলো প্রেসিডেন্ট পার্ককে অভিশংসনের যে প্রস্তাব গত সপ্তাহে এনেছিল, শুক্রবার ২৩৪-৫৬ ভোটে তা অনুমোদন পেয়েছে। এর অর্থ হল পার্কের দল সায়েনুরু পার্টির এমপিরও তার বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন।
দক্ষিণ কোরিয়ার নিয়ম অনুযায়ী, পার্লামেন্টের সিদ্ধান্তের পর পার্কের ক্ষমতা আপাতত প্রধানমন্ত্রীর ওপর বর্তাবে। পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে অভিশংসনের যে সিদ্ধান্ত হয়েছে তাতে ১৮০ দিনের মধ্েয অনুমোদন দেবে দেশটির সাংবিধানিক আদালত।
ব্যক্তিগত লাভের জন্য পুরোনো এক বন্ধুকে সুবিধা পাইয়ে দিতে রাজনৈতিক ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগসহ দুর্নীতির বিভিন্ন অভিযোগে গত ছয় সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ চলছিল দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সেউলের রাস্তায়।  জনমত জরিপে পার্কের জনপ্রিয়তা নেমে এসেছিল মাত্র চার শতাংশে।
দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তের মধ্েযই গত নভেম্বরের শেষ দিকে পার্কের কার্যালয় থেকে ৩৬৪টি ভায়াগ্রা উদ্ধার করা হলে কেলেঙ্কারি নতুন দিকে মোড় নেয়।
সে সময় প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে বলা হয়, যৌন মিলনের সময় পুরুষদের রক্তচাপ বাড়াতে সহায়ক এই ওষুধ বিমান ভ্রমণের সময় উচ্চতাজনিত অসুস্থতাতেও কাজে দেয়। এ কারণে প্রেসিডেন্টের পূর্ব আফ্রিকা সফরের সময় তার সহযোগী ও সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ওই বড়িগুলো কেনা হয়েছিল।
এই অবস্থায় বিরোধী দলগুলো অভিশংসনের আগেই সম্মান নিয়ে পার্ককে সরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল। দুই দফা ক্ষমা চাওয়ার পর পার্ক নিজেও শেষ পর্যন্ত তার সরে যাওয়ার পথ খুঁজতে পার্লামেন্টের সহযোগিতা চান। কিন্তু বিরোধীদলগুলো তার ওই বক্তব্যকে অভিশংসন এড়ানোর কৌশল আখ্যায়িত করে পার্লামেন্টে প্রস্তাব আনে।- বিবিসি বাংলা