দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার : প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

আপডেট: নভেম্বর ১৬, ২০১৯, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


আধুনিকায়নকৃত রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষক কেন্দ্র উদেদ্বাধন করেন মন্ত্রী ইমরান আহমদ, সিটি মেয়র এইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম-সোনার দেশ

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, দক্ষ হয়ে বিদেশে গেলে দুই থেকে তিন গুণ বেশি বেতন পাওয়া যায়। এজন্য দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার। দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার লক্ষে আগামিতে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে।
গতকাল শুক্রবার সকালে আধুনিকায়নকৃত রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইমরান আহমদ এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বৈদেশিক কর্মসংস্থান দেশ ও জাতির জন্য অনেক প্রয়োজন। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে প্রবাসীদের রেমিটেন্সের অবদান অনেক। বৈদেশিক কর্মসংস্থাপনের জন্য নতুন নতুন শ্রমবাজার খোঁজা হচ্ছে। আগামীতে চিন হবে অনেক বড় শ্রমবাজার।
তিনি আরো বলেন, বিদেশ যেতে হবে সব কিছু জেনে, প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে। বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে দালালদের ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।
জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর আয়োজনে শুক্রবার সকালে ফলক উন্মোচন, ফেতা কেটে এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এর উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন উপলক্ষে রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রকে যুগপোযোগী করার প্রয়োজন ছিল। আমাদের চাহিদায় আধুনিকায়নে কাজটি সঠিক সময়ে হয়েছে। এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে উন্নত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে বিদেশে যেতে পারবেন তরুণ-তরুণীরা। প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে বিদেশ গেলে অর্থ ও সম্মান দুটিই পাওয়া যায়।
কারিগরি শিক্ষার প্রতি গুরুত্বারোপ করে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন আরো বলেন, ভারতসহ আমাদের পাশর্^বর্তী দেশগুলো দক্ষ জনশক্তি বিদেশে পাঠিয়ে বিপুল পরিমাণ রেমিটেন্স অর্জন করছে। আমরা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলে ইউরোপ, আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশে পাঠাতে পারবো। এজন্য আমি তরুণ-তরুণীদের কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার অনুরোধ করছি। যাতে তোমরা সমাজ ও দেশে অবদান রাখতে পারো।
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাপন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশ এজেন্সির (কয়কা) কান্ট্রি ডিরেক্টর মো. হাইয়েনজু জিও।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন, প্রকল্প পরিচালক জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) পরিচালক ও KOICA প্রকল্প পরিচালক ড. মো. নূরুল ইসলাম। আরো বক্তব্য দেন, বিএমইটি এর মহাপরিচালক মো. শামছুল আলম ও রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক। উদ্বোধনী শেষে আধুনিকায়নকৃত রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ঘুরে দেখেন প্রধান অতিথিসহ সকল অতিথিবৃন্দ।
উল্লেখ্য, দেশ ও বিদেশে শ্রম বাজারের চাহিদা অনুযায়ী যথোপযুক্ত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষকর্মী তৈরি করে অভিবাসীদের উন্নয়ন, নিরাপত্তা ও অধিকার নিশ্চিত করতে আধুনিক কর্মোপযোগী প্রশিক্ষণের সুযোগ তৈরির উদ্দেশে KOICA এবং বিএমইটি এর মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী রাজশাহী টিটিসিকে আধুনিকায়ন করা হয়েছে। রাজশাহী টিটিসি এর আধুনিকায়নে ৮৮ কোটি টাকার মধ্যে ৬৭ কোটি টাকা দিয়েছে এবং বাংলাদেশ সরকার ব্যয় করেছে ২১ কোটি টাকা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ