দায়িত্ব নেয়ার পর রাজশাহীতে আবারো খেলাধুলা হবে : মেয়র লিটন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৮, ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ

ক্রীড়া প্রতিবেদক


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খেলোয়াড়দের সাথে পরিচিত হচ্ছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন-সোনার দেশ

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘আগামীতে রাজশাহী হবে প্রাণবন্ত শহর, খেলাধুলার শহর, সংস্কৃতি চর্চার শহর। বিগত সময়ে আমি মেয়র থাকাকালে খেলাধুলার ও সংস্কৃতি চর্চার উপর জোর দিয়েছিলাম। খেলার স্টেডিয়াম ও মাঠ সংষ্কার করে উন্নত করেছিলাম। কিন্ত গত ৫ বছরে সব ম্লান হয়ে গেছে। আমি দায়িত্ব নেয়ার পর আবারো খেলাধুলা হবে, সংস্কৃতি চর্চা হবে, ক্রিকেট, ফুটবলসহ অন্যান্য গোল্ডকাপ খেলা হবে।’
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় জেলা মুক্তিয্দ্ধু স্মৃতি স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৮ (অনূর্ধ্ব-১৭) সিটি করপোরেশন পর্যায়ের খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। রাজশাহী জেলা প্রশাসন আয়োজিত এ টুর্নামেন্টে মহানগরীর চার থানার চারটি দল অংশ নিয়েছে।
টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বাংলাদেশে ফুটবলে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ছেলে ও মেয়েরা উভয়ই ফুটবল খেলায় এগিয়ে যাচ্ছে। ক্রিকেটের পাশাপাশি ফুটবলেও আমাদের ছেলে-মেয়েরা আরো ভালো করবে আশা করি।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি) নজরুল ইসলাম প্রমুখ। এ সময় রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহসভাপতি মো. লিয়াকত আলী, সাধারণ সম্পাদক রফিউস সামস প্যাডী, যুগ্ম-সম্পাদক মো. খায়রুল আলম ফরহাদ, যুগ্মসম্পাদক মো. রেজাউল ইসলাম বাবুল, নির্বাহী সদস্য ও জেলা ক্রীড়া অফিসার মুহাম্মদ ওবায়দুল হক,মীর তৌফিক আলী ভাদু, নজরুল ইসলাম সরকার , জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নাজনীন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।
আজ শুক্রবার বিকেল চারটায় টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় মোকাবিলা করবে মতিহার ও শাহ মুখদুল থানা দল। এর আগে গতকাল সেমিফাইনালে মতিহার ২-১ গোলে বোয়ালিয়াকে ও শাহ মুখদুম ২-০ গোলে রাজপাড়া থানা দলকে পরাজিত করেছে।