দুদকের মামলায় আইনি পরামর্শ করতে বগুড়ায় লতিফ সিদ্দিকী

আপডেট: অক্টোবর ২৪, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

বগুড়া প্রতিনিধি


দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দায়ের করা একটি দুর্নীতি মামলার খোঁজখবর ও আইনি পরামর্শ করতে বগুড়ায় এসেছিলেন সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী। গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তিনি আদালত প্রাঙ্গণে গহর আলী ভবনের দ্বিতীয় তলায় সাবেক পিপি হেলালুর রহমানের চেম্বারে যান। সেখানে কয়েকজন সিনিয়র আইনজীবীর সঙ্গে দুদকের দায়ের করা মামলা সম্পর্কে আইনি পরামর্শ নেন। পাশাপাশি মামলাটি সম্পর্কে প্রয়োজনীয় খোঁজখবরও নেন তিনি।
বগুড়া বার সমিতির সাবেক সভাপতি ও সাবেক পিপি রেজাউল করিম মন্টু বলেন, সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী তার চেম্বারেও এসেছিলো। তবে ওই সময় তিনি আদালতে ছিলেন। পরে সাবেক পিপি হেলালুর রহমানের চেম্বারে তার সঙ্গে মামলার বিষয়ে নানা কথাবার্তা হয়। প্রায় দুই ঘণ্টা আদালত চত্বরে থাকার পর দুদকের মামলায় তিনি হাজির না হয়ে ফিরে যান। আইনজীবীরা জানিয়েছেন, লতিফ সিদ্দিকী মামলায় হাজির হওয়ার জন্য যান নি। তিনি এ সংক্রান্ত বিষয়ে আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা ও খোঁজখবর নেয়ার জন্য গিয়েছিলেন।
গত ১৭ অক্টোবর রাতে দুদকের বগুড়া সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে আদমদীঘি থানায় একটি দুর্নীতি মামলা দায়র করেন। পাটকলের প্রায় আড়াই একর জমি দরপত্র ছাড়াই বিক্রির মাধ্যমে সরকারের প্রায় ৪০ লাখ ৭০ হাজার টাকা আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ আবদুল লতিফ সিদ্দিকীসহ দুই জনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলার অপর আসামি হলেন- ওই জমির ক্রেতা বগুড়া শহরের কাটনারপাড়া এলাকার মৃত হারুন-অর-রশিদের স্ত্রী জাহানারা রশিদ।