দুর্গাপুরে ২২লাখ টাকা নিয়ে ভার্কের তিন কর্মকর্তা উধাও

আপডেট: নভেম্বর ১২, ২০১৭, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

দুর্গাপুর প্রতিনিধি


দুর্গাপুরে বেসরকারি এনজিও সংস্থা ভিলেজ এডুকশেন রিসোর্স সেন্টারের (ভার্ক) প্রায় ২২ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়েছে সংস্থার তিন কর্মকর্তা ও কর্মচারি। ওই ঘটনায় ভার্কের দুর্গাপুর শাখার ব্যবস্থাপক সামসুজ্জামান বাদি হয়ে তিন জনকে আসামি করে গতকার শনিবার রাতে দুর্গাপুর থানায় মামলা দায়রে করছেন। মামলা দায়রের পর থেকে খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধার ও আসামিদরে ধরতে একাধকি জায়গায় অভিযান পরচিালনা করছে দুর্গাপুর থানা পুলিশ।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, দুর্গাপুর পৌর সদরের শিবপুর রোডে বেসরকারি এনজিও সংস্থা ভিলেজ এডুকশেন রিসোর্স সেন্টারের (ভার্ক) হিসাব রক্ষক আতাবুর রহমান, সিনিয়র সুপরাভাইজার বেলায়েত হোসনে ও কেয়ারটেকার কাম গার্ড সুজন আলী গত মঙ্গলবার দিনগত রাতে অফিসের নিজস্ব তহবিলে ২১ লাখ ৩২ হাজার ৪৪৬ হাজার টাকা, ১ টি মোটরসাইকলে ও ১ টি বাইসাইকলে এবং অফিসের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়।
ঘটনার পর তাদের বাড়িতে খোঁজ নেয় ভার্ক কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তাদের কোন হদিস না পেয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে দুর্গাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন শাখা ব্যবস্থাপক সামসুজ্জামান। মামলার আসামিরা হলনে, অফিসের হিসাব রক্ষক বাগমারা উপজলোর খোদ্দকোড় গ্রামে নাসরে আলীর ছেলে আতাবুর রহমান (৩২), সিনিয়র সুপারভাইজার নওগাঁর মহাদবেপুর উপজলোর রাংতোড় গ্রামের বেলায়েত হোসেন (৩২) ও কেয়ারটেকার কাম গার্ড র্দুগাপুর উপজেলার সায়বাড় গ্রামের দুলাল হোসনেরে ছেলে সুজন আলী (২৫)।
দুর্গাপুর থানার ওসি তদন্ত মিজানুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য ইতোমধ্যেই পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় অভিযান শুরু করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ