দেশে নতুন ৬ জাতের ধান-গম

আপডেট: জুন ২৪, ২০১৯, ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


চাষাবাদের জন্য উন্মুক্ত করা হচ্ছে নতুন ছয় জাতের ধান-গম। এর মধ্যে ধানের পাঁচটি ও গমের একটি জাত রয়েছে।
কৃষি মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, জাতীয় বীজ বোর্ডের (এনএসবি) ৯৯তম সভায় এ জাতগুলো ছাড়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ১৯ জুন মন্ত্রণালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান।
বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্ভাবিত ইনব্রিড ধানের ব্রি ধান-৯০, ব্রি ধান-৯১, ব্রি ধান-৯২’এর তিনটি জাত, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্ভাবিত ইনব্রিড ধানের বিনা ধান-২২’এর একটি জাত, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত ইনব্রিড ধানের রাবি ধান-১’এর একটি জাত, বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্ভাবিত ইনব্রিড গমের ডব্লিউএমআরআই গম-১১’এর একটি জাত ছাড়করণের সুপারিশ করেছে।
অনুমোদিত জাতের গড় ফলন ও জীবনকাল এবং বৈশিষ্ট্য তুলে ধরে বলা হয়, ব্রি ধান-৯০ (আমন) এর হেক্টর প্রতি উৎপাদন ৫ দশমিক শূন্য ৭ টন ও জীবনকাল ১১৭ দিন। এটি হালকা সুগন্ধিযুক্ত ধান, এটি ব্রি ধান-৩৪ এর চেয়ে ২২ দিন আগাম। এক হাজার পুষ্ট ধানের ওজন প্রায় ১২ দশমিক ৭ গ্রাম। ৯টি স্থানে ট্রায়ালে মাঠ মূল্যায়ন দল ৯টি স্থানেই জাতটিকে ছাড়করণের পক্ষে মতামত দিয়েছেন।
হেক্টর প্রতি ব্রি ধান-৯১ (আমন) এর গড় ফলন ২ দশমিক ৩৬ টন, গড় জীবনকাল ১৫৬ দিন। এ ধান অগভীর বন্যাপ্রবণ (১ মিটার পর্যন্ত) অঞ্চলে চাষাবাদের উপযোগী। এক হাজার পুষ্টধানের ওজন প্রায় ২৬ গ্রাম। গাছের গড় উচ্চতা ১৮০ সেন্টিমিটার এবং গোড়া মোটা হওয়ায় হেলে পড়ে না। দানার রঙ হালকা লালচে বাদামি ও চাল মাঝারি মোটা। ৯টি স্থানের ট্রায়ালে মাঠমূল্যায়ন দল চারটি স্থানে ছাড়করণের পক্ষে এবং পাঁচটি স্থানে বিপক্ষে মতামত দিয়েছে।
ব্রি ধান-৯২ (বোরো)-এর গড় ফলন ৮ দশমিক ৪৪ টন। গড় জীবনকাল ১৬৫ দিন। চাল ব্রি ধান-২৯ এর চেয়ে লম্বা ও চিকন। কম পানিতে ব্রি ধান-২৯ এর চেয়ে বেশি ফলন দিতে সক্ষম। এক হাজার পুষ্ট ধানের ওজন প্রায় ২৩ দশমিক ৪ গ্রাম। ব্রি ধান-৯২ এর কা- শক্ত, পাতা হালকা সবুজ এবং ডিগপাতা চওড়া। ধানের ছড়া লম্বা ও ধান পাকার সময় ছড়া ডিগপাতা উপরে থাকে। ৯টি স্থানের ট্রায়ালে মাঠ মূল্যায়ন দল সাতটি স্থানে ছাড়করণের পক্ষে এবং দুটি স্থানে বিপক্ষে মতামত দিয়েছে।
বিনা ধান-২২ (আমন) এর গড় ফলন ৬ দশমিক ২ টন। গড় জীবনকাল ১১৫ দিন। গাছ শক্ত বলে হেলে পড়ে না। আমন ও বোরো উভয় মৌসুমে চাষ করা যায়। এক হাজারটি পুষ্ট ধানের ওজন ২৫ দশমিক ২ গ্রাম। ৮টি স্থানের ট্রায়ালে মাঠ মূল্যায়ন দল আটটি স্থানেই ছাড়করণের পক্ষে মতামত দিয়েছে।
রাবি ধান-১ (আমন) ১ এর গড় ফলন ৫ দশমিক ৭৮ টন। গড় জীবনকাল ১৩০ দিন। শীষ থেকে ধান ঝরে পড়ে না। ঢলে পড়া বিএলবি এবং ব্লাস্ট রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাসম্পন্ন। ভাত ঝরঝরে। সাতটি স্থানের ট্রায়ালে মাঠ মূল্যায়ন দল সাতটি স্থানেই ছাড়করণের পক্ষে মতামত দিয়েছে।
ডব্লিউএমআরআইগম-১ এর হেক্টর প্রতি ফলন ৩ দশমিক ৯০ টন। মেয়াদকাল ১০৫-১১২ দিন। এ জাত উচ্চফলনশীল, আগাম ও তাপসহনশীল জাত। এক হাজার দানার ওজন ৫২ থেকে ৬০ গ্রাম। পাতার দাগ রোগ এবং মরিচা রোগ প্রতিরোধী। জাতটি খাটো হওয়ায় সহজে হেলে পড়ে না।
তথ্যসূত্র: রাইর্জিবিডি