বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

নওগাঁয় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রস্তাব অনুমোদনে নওগাঁয় ও নিয়ামতপুরে আনন্দ মিছিল

আপডেট: February 21, 2020, 1:27 am

নওগাঁ ও নিয়ামতপুর প্রতিনিধি


নওগাঁ জেলায় একটি পূর্নাঙ্গ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রস্তাব অনুমোদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের বিষয়ে পরবর্তী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পরিচালক-৭ মোহাম্মদ রফিকুল আলম গত ১৭ ফেব্রুয়ারি স্বাক্ষরিত এক পত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১, খাদ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পরিচালক-২ এর ব্যক্তিগত কর্মকর্তার কাছে অনুলিপি প্রদান করেছেন।
প্রজ্ঞাপনের সূত্রে ২ ফেব্রুয়ারি একটি আধা সরকারি পত্রের কথা উল্লেখ করা হয়। ওই পত্রের প্রেক্ষিতে নওগাঁ জেলায় একটি পূর্নাঙ্গ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন করেছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর পূর্ব ঘোষিত অভিপ্রায় অনুযায়ী আধা সরকারি ওই পত্রের মাধ্যমে আবেদ করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। এদিকে প্রজ্ঞাপন প্রাপ্তির কথা নিশ্চিত করে নওগাঁ-১ (নিয়ামতপুর-পোরশা-সাপাহার) আসনের সাংসদ ও খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার জানান, শিগগিরিই বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের কার্যক্রম শুরু হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ইতোমধ্যেই দুটি সম্ভাব্য স্থান পরিদর্শন করা হয়েছে। প্রস্তাবটি অনুমোদন করায় নওগাঁবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।
এদিকে প্রস্তাব অনুমোদনের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শহরে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির রহমান রিজভী ও সাধারণ সম্পাদক আমানুজ্জামান সিউলের নেতৃত্বে এসময় জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক জাভেদ জাহাঙ্গীর সোহেল ও বিভাস মজুমদার গোপাল, তথ্য যোগাযোগ সম্পাদক শফিকুর রহমান মামুন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নাছিম আহমেদ, আওয়ামীলীগ নেতা শাহ পরান নয়ন ও ইমরান হোসেনসহ আ’লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও আনন্দ মিছিলে সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেয়।
অন্যদিকে নিয়ামতপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এ উপলক্ষে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। গত বুধবার সন্ধ্যে ৭টায় উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদের নেতৃত্বে উপজেলা আ’লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সর্ব সাধারণের অংশ গ্রহণে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়।
র‌্যালিটি উপজেলা মেইন গেইট থেকে শুরু করে উপজেলা বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদের স্থায়ী মঞ্চে এসে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারীয়া পেরেরার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসাইন, ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম, অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ।
উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার সেলিম উদ্দিনের পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি বাবু ঈশ্বর চন্দ্র বর্মন, সাধারণ সম্পাদক ও বাহাদুরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবদুস সালাম, নিয়ামতপুর সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বজলুর রহমান নইম, হাজিনগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবদুর রাজ্জাক, ভাবিচা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ভাবিচা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ওবাইদুল হক, হাজিনগর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সুরঞ্জন বিজয়পুরী, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জনি আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক সাহান সা, কার্য নির্বাহী সদস্য শাহজাহান সাজু, নূরুন নবী।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ