নওগাঁয় মায়ের পরকীয়ার বলি মেয়ে

আপডেট: March 28, 2020, 7:01 pm

নওগাঁ প্রতিনিধি


নওগাঁয় পরকীয়ার জেরে সুমাইয়ার আক্তার (৭) বছরের এক শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার মায়ের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর শিশুটির মা তামান্না বেগম পলাতক রয়েছে। গত শুক্রবার রাতের কোন এসময় নওগাঁ সদর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর সরদারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সুমাইয়ার আক্তার গ্রামের প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের মেয়ে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো শুক্রবার রাতে মা তামান্না বেগম ও মেয়ে সুমাইয়া আক্তার রাতের খাওয়া শেষে ঘুমিয়ে পড়ে।
আজ শনিবার সকালে তারা ঘুম থেকে না উঠায় সুমাইয়ার দাদী তাদের ডাকতে যায়। ঘরের দরজায় ধাক্কা দেয়ার পরও ভিতর থেকে কোন সাড়াশব্দ মিলেনি। পরে জোরে ধাক্কা দিলে দরজার খুলে যায়। এসময় খাটের উপর সুমাইয়া ঘুমানো অবস্থায় দেখা গেলেও তার মা তামান্না বেগমকে দেখা যায়নি। সুমাইয়াকে ডেকেও কোন সাড়া পাওয়া যায়নি। পরে তার গায়ে হাত দিলে কোন নড়াচড়া না পেয়ে কান্নাকাটি শুরু করে। এসময় স্থানীয়রা এসে দেখে সুমাইয়ার নিথর দেহ খাটের উপর পড়ে আছে এবং তার মা বাড়ি বা এলাকায় নাই। আর ঘরের মধ্যে খাটের উপর অগোছালো খাটের চাদর ও সিগারেটের প্যাকেট ও প্যাকেটের সাথে ৫০ টাকা পড়ে ছিল। সুমাইয়া বাবা দীর্ঘদিন থেকে প্রবাসে রয়েছে।
নওগাঁ সদর থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সংবাদ পেয়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদেন্তর জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত বিষয়টি জানা যাবে। তবে পরকীয়া ঘটনায় এমনটি হতে পারে। ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ