নখ যেভাবে ক্যানসারের লক্ষণ প্রকাশ করে

আপডেট: জুলাই ১৬, ২০১৯, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


স্কিন ক্যানসারের কথা বললে আপনি সম্ভবত শরীরের তিল চেক করার কথা ভাবেন। কারণ আপনার জানা আছে যে, তিলের যেকোনো পরিবর্তন হলো স্কিন ক্যানসারের অন্যতম প্রধান উপসর্গ। কিন্তু আপনি হয়তো জানেন না যে, আপনার নখও মেলানোমার লক্ষণ প্রকাশ করতে পারে।
যুক্তরাষ্ট্রের ম্যানিকিউরিস্ট জিয়ান স্কিনার একজন গ্রাহকের নখে মেলানোমার একটি উপসর্গ লক্ষ্য করেন। ফেসবুকে তিনি লিখেছিলেন, ‘আমার কাছে একজন গ্রাহক এসেছিল, তার নখে একটি খাড়া কালো সরলরেখা ছিল। তিনি কোনো রঙ দিয়ে এ কালো দাগটি ঢেকে দিতে এসেছিলেন। আমরা ধারণা করেছিলাম যে, ক্যালসিয়াম ঘাটতির কারণে এ রহস্যময় রেখার উৎপত্তি হয়েছে অথবা এটি হতে পারে ব্লাড ব্লিস্টার বা বংশগত কারণে সৃষ্ট দাগ।’
কিন্তু স্কিনার তার এ গ্রাহককে এটাও জানাতে ভুলেননি যে, এ কালো রেখাটি মেলানোমারও উপসর্গ হতে পারে। এ উপসর্গ সম্পর্কে খুব কম মানুষই জানেন।
সাবুনগুয়াল মেলানোমা বা নেইল মেলানোমা হলো একটি স্কিন ক্যানসার- এ ক্যানসারটি নখের নিচে হয়ে থাকে। মেলানোমায় আক্রান্ত ০.৭-৩.৫ শতাংশ রোগীর স্কিন ক্যানসার হলো নেইল মেলানোমা। আমেরিকান অ্যাকাডেমি অব ডার্মাটোলজির প্রতিবেদন অনুযায়ী, নেইল মেলানোমা একটি বিরল ক্যানসার হলেও এ রোগের লক্ষণগুলো জেনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ: নখের নিচে কালো বা বাদামী রেখার আবির্ভাব হতে পারে নেইল মেলানোমার একটি প্রধান লক্ষণ।
স্কিনারের ফেসবুক পোস্ট থেকে আরো জানা যায় যে, তার গ্রাহকের নখের কালো রেখাটি ছিল নেইল মেলানোমা। স্কিনারের ক্যানসার বিষয়ক সন্দেহটি সত্য প্রমাণিত হলো। গ্রাহকটি স্কিনারকে কল করে অবহিত করেন যে ডাক্তারি পরীক্ষায় অ্যাগ্রেসিভ মেলানোমা ধরা পড়েছে যা লসিকাগ্রন্থি পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে।
এটা মনে রাখতে হবে যে, ব্ল্যাক ব্যান্ড বা কালো রেখাই নেইল মেলানোমার একমাত্র উপসর্গ নয়। নেইল মেলানোমার অন্যান্য লক্ষণগুলো হলো: নখের চারপাশে কালো ত্বক, নখ ভেঙে যাওয়ার প্রবণতা এবং নখের নিচে রক্ত বা পুঁজ। কেবলমাত্র স্কিন ক্যানসার নয়, অধিক কার্যকর চিকিৎসার জন্য যেকোনো ক্যানসারই তাড়াতাড়ি শনাক্ত করা গুরুত্বপূর্ণ, তাই আপনার নখের নিচে ডার্ক মার্ক বা কালো দাগ দেখলে অথবা অন্যকোনো সন্দেহজনক উপসর্গ লক্ষ্য করলে অবিলম্বে চিকিৎসকে দেখান। তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট