নগরীতে চোর সন্দেহে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

আপডেট: জানুয়ারি ৩১, ২০১৮, ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


নগরীতে চোর সন্দেহে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে রফিকুল ইসলাম লাল্টু (৩৫) নামের এক যুবককে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। দুইদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। নিহত লাল্টু নগরীর বহরমপুর এলাকার আহাদ আলীর ছেলে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
নিহতের স্বজনরা জানান, সোমবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে প্রতিবেশী আজিজুলের বাড়িতে চুরি হয়। ওই চুরির ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে আজিজুল তার ভাই রফিকুল ইসলামকে রাত ১১টার দিকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর তাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে।
স্বজনরা আরো জানান, রোববার রাত ১১টার দিকে কয়েকজন ব্যক্তি লাল্টুকে কথা আছে বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর বহরমপুর মোড়ের আজিজুলের চেম্বারে লাল্টুকে হাতুড়ি এবং লোহার রড দিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়। এরপর পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি জানতে পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাল্টুকে উদ্ধার করে। পরে তার অবস্থা সঙ্কটাপন্ন হওয়ায় রামেক হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার সকালে লাল্টুর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে তাকে ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে স্থানান্তর করে চিকিৎসকরা। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় লাল্টুর মৃত্যু হয়।
রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতে খায়ের আলম বলেন, এ ব্যাপারে আমরা অভিযোগ পাই নি। বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ নেয়া হবে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।