নগর পরিচ্ছন্নতায় অংশ নিলেন মেয়র লিটন

আপডেট: নভেম্বর ৯, ২০১৮, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন গতকাল নগর পরিচ্ছন্নতার কাজে অংশ নেন-সোনার দেশ

মহানগরীর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম ও ডাস্টবিন বিতরণের উদ্বোধন করেছেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার কার্যক্রম উদ্বোধনের পর ঝাড়– দিয়ে সড়ক ও আশপাশের আবর্জনা পরিষ্কার করেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন।
রাসিকের পরিচ্ছন্ন বিভাগের উদ্যোগে নগরীর সাহেববাজার বড়সমজিদের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর মেয়র সড়কে ঝাড়– দিয়ে আবর্জনা পরিষ্কার করেন এবং তা ময়লা ভ্যানে তোলেন। মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনসহ তিন প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দ নগরীর সাহেববাজার বড়মসজিদের সামনে থেকে আরডিএ মার্কেটের পর্যন্ত সড়ক ঝাড়– দিতে দেখা যায়। এরপর সেখানে ডাস্টবিন বিতরণ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। অনুষ্ঠানে ১০ জন ব্যবসায়ীকে ডাস্টবিন প্রদান করা হয়। আগামীতে প্রথমধাপে নগরীর প্রায় ১২ হাজার ব্যবসায়ীকে ডাস্টবিন প্রদান করা হবে।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র লিটন বলেন, এই নগরী আপনার, আমার, আমাদের সবার। একে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে রাখার দায়িত্বও আমাদের। পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতাকে ঈমানের অঙ্গ বলা হয়। আসুন, আমরা সবাই মিলে শহরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখি। রাসিকের পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মীরা নিরসল পরিশ্রম করে নগরকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন করবে। আপনারা সবাই একাজে সহযোগিতা করুন। আপনাদের সহযোগিতা ছাড়া এ কাজ করা সম্ভব হবে না।
মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, প্রথমধাপে শহরের ১২ হাজার ব্যবসায়ীকে ডাস্টবিন প্রদান করা হবে। প্রতীকিভাবে ১০ জনকে প্রদান করা হলো। যারা ব্যবসায়ীরা আছেন, আগামীতে দোকান বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ময়লা-আবর্জনা রাস্তায় ফেলবেন না। নির্দিষ্ট ডাস্টবিনে সব মলয়া-আবর্জনা ফেলুন। আমাদের পরিচ্ছন্ন কর্মীরা সেগুলো এসে নিয়ে যাবে।
মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন আশা প্রকাশ করে বলেন, ২০০৮ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত সিটি কর্পোরেশন অনেক পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ছিল। আপনাদের সহযোগিতায় আবারো এই শহর পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন, ঝকঝকে তকতকে হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ রজব আলী, প্যানেল মেয়র-৩ তাহেরা বেগম মিলি এবং অন্যান্য কাউন্সিলরবৃন্দ, স্থানীয় দৈনিক সোনালী সংবাদের সম্পাদক লিয়াকত আলী, রাসিকের পরিচ্ছন্ন বিভাগের প্রধান কর্মকর্তা শেখ মো. মামুন ডলার, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি এর সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি, পরিচালক আতিকুর রহমান কালু, সহসভাপতির মাসুদুর রহমান রিংকু, দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সারোয়ার হোসেন স্বপন, ব্যবসায়ী সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার আলী, আরডিএক মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ফরিদ মামুদ হাসান, সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ মাদুদু হাসান প্রমুখ।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ