নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের বিদায় সংবর্ধনা ও বনভোজন

আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০১৮, ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের উদ্যোগে রাজশাহীস্থ বিজিবি পার্কে (সীমান্তে অবকাশ) বিদায় সংবর্ধনা ও বার্ষিক বনভোজন ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়। দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক, দেশবরেণ্য কবি, নারী সংগঠক অধ্যাপক রাশেদা খালেক। তিনি বলেন, ‘ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ সব সময়ই ভিন্ন ধরণের প্রোগ্রামের আয়োজন করে থাকে। বিভাগের নামের সাথে যে ‘সংস্কৃতি’ শব্দটি যুক্ত আছে তা তারা যথাযথভাবে মূল্যায়ন করতে সক্ষম হয়েছে। প্রধান বক্তা ছিলেন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর আবদুল খালেক। মাননীয় উপাচার্য বলেন, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের আয়োজন দেখে আমি মুগ্ধ হয়েছি। বিভাগটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বিশিষ্ট স্থান অর্জনে সক্ষম হবে আমার বিশ্বাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিভার্সিটির চিফ কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর পি এম সফিকুল ইসলাম, কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. ওয়াজেদ আলী, আইন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. হাবিবুর রহমান, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রিয়াজ মোহাম্মদ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. জোনাব আলী। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের কো-অর্ডিনেটর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. আজিবার রহমান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিভাগের প্রভাষক মো. হাফিজুর রহমান। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিভাগের প্রভাষক মো. আব্দুল্লাহ সরকারসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ। বিদায়ী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন হোসনে আরা পাখি, মো. ফরিজউদ্দীন, মো. রইচ উদ্দীন। অনুষ্ঠানে কুইজ প্রতিযোযিগতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার প্রদান। কুইজ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করে ইসলামের ইতিহাস সংস্কৃতি বিভাগের নবম ব্যাচের ছাত্র এনামুল হক, দি¦তীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জন করে যথাক্রমে এম.এ শেষবর্ষেল শিক্ষার্থী মো. দুরুল হুদা ও ফেরদৌসী পারভীন। বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠান প্রানবন্ত হয়ে উঠে।