নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনায় তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছে জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

নাটোর অফিস


নাটোরের বনপাড়া-পাবনা মহাসড়কের ক্লিকমোড়ে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ১৫জন নিহতের ঘটনায় জেলা প্রশাসনের গঠিত তদন্ত কমিটি রিপোর্ট জমা দিয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুনের কাছে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেন ওই কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ সাইদুজ্জামান।
এসময় কমিটির অন্য দুই সদস্য বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ ও বিআরটিএ এর সহকারী পরিচালক সাইদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। ৮পৃষ্টার এই তদন্ত রিপোর্টে লেগুনা চালকের বেপোয়ারা গতিকে দুর্ঘটনার মুল কারণ হিসেবে দায়ী করা হয়েছে। এছাড়া সড়ক দুর্ঘটনা রোধে মোট ১২টি সুপারিশমালা তুলে ধরা হয়েছে।
সুপারিশগুলোর মধ্যে রয়েছে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চালানো বন্ধ করা, চালকের লাইসেন্স ও প্রশিক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করা, দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানো নিয়ন্ত্রণ, অনিরাপদ ওভার টেকিং বন্ধ করা, অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই নিয়ন্ত্রণ, ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক মোরামত, নির্বিঘেœ ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান, নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, সাইন সিগন্যাল বোর্ড তৈরি করাসহ পুলিশি কার্যক্রম জোরদার করা।
তদন্ত রিপোর্ট সম্পর্কে তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ সাইদুজ্জামান জানান, সড়ক দুর্ঘটনার জন্য মূলত বাস চালকের চেয়ে লেগুনার চালকই বেশি দায়ী। প্রত্যক্ষদর্শী দুর্ঘটনায় পতিত হওয়া যাত্রীদের সাথে কথা বলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।
উল্লেখ্য, গত ২৫আগস্ট বনপাড়া-পাবনা মহাসড়কের ক্লিকমোড়ে লেগুনা-বাস মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৫জন নিহত হয়। এরপর নাটোর জেলা প্রশাসন ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ সাইদুজ্জামান কে প্রধান করে ৩সদস্যের তদন্তকমিটি গঠন করে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ