‘নারী উদ্যোক্তারা প্রতিবন্ধকতার শিকার’

আপডেট: জুলাই ১০, ২০১৭, ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


নারী উদ্যোক্তারা ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে মূলধন সংগ্রহ, লাইসেন্স প্রাপ্তি, ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হন। ব্যাংক ঋণ প্রাপ্তির ক্ষেত্রেও নারী উদ্যোক্তাদের সংখ্যা খবুই কম।
ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) সভাপতি আবুল কাসেম খান রোববার বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তা উন্নয়নে দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন। ডিসিসিআই এবং সুইজারল্যান্ডভিত্তিক ট্রেস্ট্রেল গ্রুপ ফাউন্ডেশন যৌথভাবে এ কর্মশালার আয়োজন করে।
অনুষ্ঠানে ঢাকা চেম্বারের সভাপতি আবুল কাসেম খান তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী ২০১৬ সালে এসএমই খাতের নারী উদ্যোক্তাদের মাঝে পাঁচ হাজার ৩৪৫ কোটি টাকার ঋণ বিতরণ করা হয়েছে, যা এই খাতে মোট ঋণ বিতরণের মাত্র ৩.৭৭ শতাংশ।
ডিসিসিআই সভাপতি বলেন, নারী উদ্যোক্তাদের প্রতিবন্ধকতা নিরসনে ও নারীদের অর্থনৈতিক স্বনির্ভরতা ও ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানসমূহকে একযোগে কাজ করতে হবে।
আবুল কাসেম খান বলেন, সমাজের নারীদের ক্ষমতায়নে নারীদের অবশ্যই অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নের লক্ষ্যে ব্যবসায়িক সুযোগ তৈরির জন্য সরকারকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। তিনি নারী উদ্যোক্তাদের নতুন নতুন ব্যবসায়িক চিন্তা-ভাবনা ও পণ্য উৎপাদনে মনোযোগী হওয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
ঢাকা চেম্বারের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় নারী উদ্যোক্তাদের পণ্য উৎপাদন ও বিপণন, ব্যবস্থাপনা, পার্টনারশিপ, বাজার সম্প্রসারণ, ক্রেতা নির্বাচন এবং অর্থায়ন বিষয়ে ধারণা প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে নারী উদ্যোক্তা এবং দোহাটেক-এর চেয়ারম্যান দোহা শামসুজ্জোহা এ ধরনের উদ্যোগে সহযোগিতা প্রদানের জন্য ঢাকা চেম্বারকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তারা বেশিরভাগই এসএমই, তবে সাম্প্রতিক সময়ে অনেক নারী উদ্যোক্তা বৃহৎ শিল্প স্থাপনে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। তিনি নারী উদ্যোক্তাদের সহজশর্তে ঋণ প্রদান এবং ঋণ প্রদান প্রক্রিয়া সহজীকরণের আহ্বান জানান। এনভয় ওয়ার্ল্ড-এর প্রতিনিধি রালফশোনবাখ এবং ট্রেস্ট্রেল গ্রুপ-এর প্রতিনিধি জিনেটি উইডম্যান দুই দিনব্যাপী কর্মশালাটি পরিচালনা করে।
দুই দিনব্যাপী এ ট্রেনিং ওয়ার্কশপে প্রায় ৮০ জন নারী উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করেন এবং ঢাকা চেম্বারের মহাসচিব এএইচএম রেজাউল কবির অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন। রাইজিংবিডি