নিজের হাতে রোবট বানালো শিশুরা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৮, ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের আয়োজনে শনিবার রাজধানীর জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো নিজের হাতে রোবট বানাই এর প্রথম পর্ব শীর্ষক ওয়ার্কশপ। ঢাকায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো শিশুদের নিয়ে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের এই আয়োজন। পরবর্তীতে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
আয়োজনটিতে শিশুদের ২টি গ্রুপে বিভক্ত করে ওয়ার্কশপটি পরিচালনা করা হয়। প্রথম থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত একটি গ্রুপ ও পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত আরেকটি গ্রুপে ভাগ করে ওয়ার্কশপটিতে শিশুদের নিয়ে আয়োজন স্থলেই রোবট বানানোর ব্যবস্থা করা হয়। ১০ জন অভিজ্ঞ মেন্টর ওয়ার্কশপটিতে শিশুদের রোবট বানানোর জন্য সহযোগিতা করেন। ওয়ার্কশপে ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৪০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। শিশুরা তাদের মেন্টরের সহযোগিতায় লাইট ফলোয়িং রোবট, ড্রয়িং রোবট, ওয়াকিং রোবট তৈরি করে। বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, আমাদের শিশুদের মেধার বিকাশ এবং উদ্ভাবনী চিন্তায় ধারাবাহিকতায় আনার জন্য আমরা এমন উদ্যোগ নিয়েছি। প্রাথমিকভাবে ঢাকাতে শুরু করলেও আমরা দেশব্যাপী শিশুদের নিয়ে এমন আয়োজন করতে চাই।
ওয়ার্কশপে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান লাফিফা জামাল বলেন, শিশুদের মেধার বিকাশের জন্য এমন উদ্যোগ প্রশংসনীয়। শিশুদের জন্য এমন সুযোগ তৈরি করলে আমাদের দেশের শিশুরা অনেক ভালো কিছু করবে বলেই আশা করি। বিজ্ঞান নিয়ে সারা বিশ্বে এখন প্রতিনিয়ত গবেষণা, কার্যক্রম চলছে। আমাদের দেশের শিশুদের নিয়ে বিজ্ঞানভিত্তিক কার্যক্রম আরও বেশি করা উচিত যার ফলে শিশুরা ছোট থেকেই বিজ্ঞানের প্রতি তাদের আগ্রহ এবং উদ্ভাবনী বিকাশ ঘটাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের এই আয়োজনে সহযোগিতায় ছিলো রেভারি, ইনোভেটিভ লিমিটেড, রোবটিক শপ ও বাইল্যাব। তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন