বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

নিরাপত্তা নিয়ে একবারও ভাবেন নি শান্ত

আপডেট: January 21, 2020, 1:04 am

সোনার দেশ ডেস্ক


ক্রিকেটের সফর, কিন্তু আলোচনায় ক্রিকেট আছে সামান্যই। বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরের আগে আলোচনার বেশির ভাগটা জুড়ে নিরাপত্তা প্রসঙ্গ। আছে নানা শঙ্কা ও দুর্ভাবনা। তবে এক বছর আগে পাকিস্তান সফর করে আসা নাজমুল হোসেন শান্তর এসব নিয়ে ভাবনা নেই। তরুণ ব্যাটসম্যান মন দিচ্ছেন মাঠের ক্রিকেটে।
পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত বলে পাকিস্তান সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। যারা দলের হয়ে যাচ্ছেন পাকিস্তানে, তাদের মনে শঙ্কার ছায়া কিছুটা থাকার কথা।
তবে শান্ত পরিষ্কার নিজের মনের কাছে। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপ খেলতে বাংলাদেশের হয়ে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন তিনি। এবারের টি-টোয়েন্টি জাতীয় দলের আফিফ হোসেনও ছিলেন সেবার। করাচিতে তিনটি ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ ইমার্জিং দল।
শান্ত জানালেন, ওই সফরের অভিজ্ঞতা থেকে পাকিস্তানে যেতে পারছেন নিশ্চিন্ত মনে। “এগুলো (নিরাপত্তা) নিয়ে আসলে চিন্তা করছি না। পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে খেলাতেই মনোযোগ দিচ্ছি। নিরাপত্তা যেহেতু আমাদের হাতে নেই, সেহেতু এগুলো নিয়ে চিন্তা করতেছি না। একবারও ভাবিনি। গত বছর (২০১৮ সালে) গিয়েছিলাম আমি ওখানে। তাই এগুলো নিয়ে একদমই ভাবছি না। খেলাতেই মন দিচ্ছি।”
খেলাতে মন দিলেও শান্ত দেখতে পাবেন, চ্যালেঞ্জ অনেক কঠিন। সাম্প্রতিক ফর্ম ভালো না হলেও টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দল পাকিস্তান। তাদের বিপক্ষে খেলতে হবে তাদের দেশেই। শান্ত যদিও ভাবতে চান কেবল নিজেদের শক্তি-দুর্বলতা নিয়েই।
“অবশ্যই চ্যালেঞ্জিং (পাকিস্তানের বিপক্ষে লড়াই)। কিন্তু দল হিসেবে যদি খেলতে পারি, ইনশাআল্লাহ ওখানেও ভালো ফল করা সম্ভব। যদিও ওদের দল নিয়ে আমরা খুব বেশি চিন্তা করছি না। আমাদের নিজেদের যে পরিকল্পনা, শক্তির জায়গা আছে, ওসব আমরা যদি ঠিক রাখতে পারি, এখানে ভালো করা সম্ভব বলে আমি মনে করি।”
তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বুধবার রাতে ঢাকা ছাড়বে বাংলাদেশ দল। ম্যাচ তিনটি হবে লাহোরে; আগামী শুক্র, শনি ও সোমবার।