নির্মাণ শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় আনার দাবী

আপডেট: জুন ১৮, ২০১৯, ১:১৩ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


মানববন্ধনে রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খানসহ অংশগ্রহণকারীরা সোনার দেশ

শিল্পের সাথে কর্মরত ৩৭ লক্ষ শ্রমিক এবং সারাবিশে^ প্রবাসী শ্রমিক হিসেবে সেকল শ্রমিক কাজ করছে। তার সিংহভাগ নির্মাণ শ্রমিক। দেশের সকল অবকাঠামো নির্মাণে শ্রমিকদের অবস্থান এবং বিশে^র দেশে দেশে নির্মাণ শ্রমিকরা কাজ করে যে বৈদেশিক অর্থ প্রেরণ করছে তার সিংহভাগ অর্থ দেশের উন্নয়ন ও প্রতি বৎসরে বাজেটে হিসাব নিকাশ করেই দেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। নির্মাণ শিল্পে কর্মরত শ্রমিকরা খুবই ঝুকিপূর্ণ ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে কাজ করে যার ফলে প্রতিনিয়ত কর্মস্থলে শ্রমিকরা দুর্ঘটনায় আহত-নিহত হওয়ার ঘটনা অহরহ ঘটছে। কর্মস্থলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের কারণে দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে কর্মক্ষম হয়ে পড়ছে অসহায় শ্রমিকরা। এদের জন্য নাই কোন সামাজিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
বিগত বছরগুলোর মতো ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেটেও নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য প্রস্তাবিত এই বিশাল বাজেটে কোন প্রকার অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়নি। নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য কর্মস্থলে নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য সম্মত কর্ম পরিবেশ, পেনশন স্কীম চালু, বাসস্থান, চিকিৎসা ভাতা, কর্মস্থলে নিহত আহত শ্রমিকদের পরিবারকে আর্থিক প্রণোদনা, রেশনিং ব্যবস্থাসহ চলতি বাজেটে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে নির্মাণ শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় আনার জন্য এক বিবৃতিতে জোর দাবি জানিয়েছেন ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন বাংলাদেশ (ইনসাব) এর সভাপতি রবিউল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ