নিয়ামতপুরে র‌্যাব-পুলিশের মাদক বিরোধী যৌথ অভিযান: ১শ ২৫ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার || ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৬ জনের সাজা

আপডেট: জুন ১৪, ২০১৮, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

নিয়ামতপুর প্রতিনিধি


নওগাঁর নিয়ামতপুরে র‌্যাব-পুলিশের মাদক বিরোধী যৌথ অভিযানে ১৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ও ২জনকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। জানা যায়, গত মঙ্গলবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু সালেহ মো. মাহফুজুল আলম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার র‌্যাব-৫ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) আবুল খায়ের, নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) নাজমূল হকের যৌথ নেতৃত্বে নিয়ামতপুর থানার এসআই আসাদ, এসআই চিত্তরঞ্জন, এএসআই সেরাফত হোসেন, ডিষ্ট্রিক্ট স্পেশাল ব্রাঞ্চ (ডিএসবি) নাজমূল ইসলামসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে র‌্যাব-পুলিশ যৌথভাবে মাদক বিরোধী অভিযান চালায়। এসময় ১শ ২৫ গ্রাম গাঁজা, ইয়াবা ও হেরোইনসহ ১৬ জনকে আটক করা হয়। পরে আটককৃতদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে আদালত ১৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারদণ্ড ও ২জনকে অর্থদণ্ড প্রদান করেন।
এ ঘটনায় ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো শুকানদীঘি গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে রানা হামিদ বাবু (১৯), গন্ধশাইল গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে এনামূল হক (৪৫)। অন্যদিকে ১ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- কৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত- ছবিরের ছেলে রেজাউল ইসলাম (৩৪), একই গ্রামের কছিমুদ্দিনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৪০) এবং নিয়ামতপুর বাজার এলাকার আজিজুল হক সেন্টুর স্ত্রী মেঘা আক্তার সালমা (২৬)। এছাড়া ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- মহিশো গ্রামের সেরাজ মন্ডলের ছেলে আকসেদ আলী (৪৫), আহারকান্দর গ্রামের বিনোদের স্ত্রী খলি রানী (৫০), মহিশো গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে উজ্জ্বল ইসলাম (২০), রাওতাল গ্রামের মোদাচ্ছেরের ছেলে মোসাদ্দেক (২৫) এবং ৩ মাস বিনাশ্রম কারদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- মহিষকুড়ি গ্রামের মৃত- সবুল্যা প্রাংয়ের ছেলে গুল মোহাম্মাদ প্রাং (৫০), করবলা গ্রামের রজনীর ছেলে আকাল রবিদাস (২৭) এছাড়া আরো তিনজনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ও দুইজনকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু সালেহ মো. মাহফুজুল আলম বলেন, মঙ্গলবার গোটা উপজেলার বিভিন্ন আদিবাসীসহ যেখানে যেখানে মাদক বিক্রি হয় সেসব স্থানগুলোতে র‌্যাব এবং পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান চালানো হয়। এসময় ১শ ২৫ গ্রাম গাঁজা, ইয়াবা, হেরোইন উদ্ধারসহ ১৬ জনকে হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে আটককৃতদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের প্রত্যেককে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ